• রবিবার (সকাল ৭:১৪)
    • ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার প্রতি প্রবাসীদের আহবানঃ খুলনা কন্ঠের সম্পাদক শেখ রানাকে বাঁচান

মিয়া মোহাম্মদ হেলাল, ক্রাইম ডায়রির   বিশেষ প্রতিনিধি, লন্ডন  হতেঃ

বঙ্গকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে অন্যায়ের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করেছেন।।। বঙ্গবন্ধু যেমন অন্যায়কে প্রশ্রয় দিতেন না।।বঙ্গকন্যাও অন্যায় ও অবিচারের সাথে আপোষহীন। তিনি জানেন এদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে হলে,মানুষগুলিকে সোনার মানুষ বানাতে হলে বড় বাঁধা হলো মাদক। তাই মাদকের বিরুদ্ধে তিনি জিহাদ ঘোষনা করেছেন। যার শ্লোগানই হলো-” চল যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে”। বঙ্গকন্যার সেনাপতিত্বে সারাদেশে এই যুদ্ধ যখন চলমান,তখন মাদকবাজরাও বসে নেই।।তারা এখন ভোল পাল্টে, এই লাভজনক ব্যবসাকে হালাল করতে কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলার মত করে আওয়ামীলীগের ভিতরে ঢুকে নিজেরা আওয়ামীলীগার সেজে আঁখের গোছানোর চেষ্টা করছে বলে তৃনমুল হতে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

এদের সহযোগিতা যারা করছে গভীর অনুসন্ধানে দেখা যায়, এরা প্রকৃত আওয়ামীলীগের নয়। এদের গোঁড়ায় অনুসন্ধান করে দেখা গেছে, এদের লিংক আওয়ামী বিরোধী শিবিরের সাথে যুক্ত। কোনও ভাবে সরকারের দূর্নাম করা কিংবা বেকায়দায় ফেলা এদের উদ্দেশ্য। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণকারী খুলনা কণ্ঠের সম্পাদক শেখ রানা ভাইকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে।  সাংবাদিক শেখ রানা   কি শেখ হাসিনার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণায় এগিয়ে এসে বঙ্গকন্যার আদেশ বাস্তবায়নেে সহযোগীতা করে অপরাধ করেছেন ? মাদক কারবারী-সেবনকারী তথাকথিত আন্ডারগ্রাউন্ড পত্রিকা কিংবা ব্যাঙ্গের ছাতার মত গজিয়ে ওঠা অনুনোমোদিত অনলাইনের কার্ড ক্রয় করে অন্য পেশায় জড়িয়ে থাকা হলদে সাংবাদিক, হাইব্রীড লীগাদের বিরুদ্ধে কলম ধরেছিলেন সম্পাদক শেখ রানা ভাই ও ইশরাত ইভা দম্পতি। যার জন্য ওদের রোষানলে পড়ে তাদের কাছ থেকে বখরা নেওয়া তথাকথিত ও পুলিশ বাহিনীকে ইমেজ সংকটে ফেলার মিশনে নামা বিএনপি-রাজাকারপন্থী   দুর্নীতিবাজ পুলিশ কর্মকর্তার যোগ সাজশে একটার পর একটা মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে শেখ রানাকে। রিমান্ডে নিয়ে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের মাধ্যমে তিলে তিলে শেষ করা হচ্ছে বলে তার পরিবার থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে। সন্তান কোলে নিয়ে স্বামীর জন্য প্রশাসন-আদালতের বারান্দায় হাঁটতে হাঁটতে বুক ভরা হাহাকার নিয়ে ক্লান্ত হয়ে ফিরে আসতে হচ্ছে বার বার। অজানা আশংকায় কাটাতে হচ্ছে প্রতিটি দিন রাত্রি। এভাবে আর কত ?

রানা-ইভা দম্পতির এই অবস্থা দেখার পর কি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালিত ও বঙ্গকন্যাকে প্রকৃত ভালবাসা  আর কোন নেতা কর্মীর সাহস-মনোবল থাকবে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে ? কিংবা সরকার ঘোষিত কর্মসূচি সফল করতে এগিয়ে আসতে ?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানবতার কন্যা  শেখ হাসিনার হাজার টাকার সাজানো বাগানকে বিনষ্ট ও কলংকিত করছে মাদক কারবারী, হলুদ সাংবাদিক, হাইব্রীডলীগারদের মত দুই টাকার ছাগল গুলো।

তাই বঙ্গকন্যার নিকট দেশী ও প্রবাসী আওয়ামীপন্থী গণমানুষের দাবী, হে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, তৃণমূলের দিকে নজর দিন। রানা-ইভাদের মতো বঙ্গবন্ধু প্রেমীরা যদি হেরে যায়, তাহলে হেরে যাবে আওয়ামীলিগ। আর আওয়ামীলীগ যদি হেরে যায়, তবে হেরে যাবে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। অতএব ওদের হাত থেকে দেশটাকে বাঁচান।

***মিয়া মোহাম্মদ হেলাল

(লেখক, যুক্তরাজ্য প্রবাসী-মুক্তচিন্তার মূর্তপ্রতীক,দেশপ্রেমিক, আওয়ামী অনলাইন এক্টিভিস্ট, আওয়ামীলীগ গবেষক,  বঙ্গবন্ধু ও শেখহাসিনার  সূর্য সৈনিক,বাংলা ডায়রি মিডিয়া লিঃ এর উপদেষ্টা ।।।)

Total Page Visits: 66747

বগুড়ার সীমাবাড়িতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগঃ মাইকিং করে বয়স্কভাতার কার্ড যাচাই

সীমাবাড়ি হতে আব্দুল লতিফ ফকিরঃ

সারাদেশের মত বঙ্গকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে   বয়স্ক,বিধবা ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে ভাতা প্রদান করা হয়েছে। অভিযোগ আছে বয়স্করা ঠিকভাবে ভাতা পাননা। এ কারনে বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী সীমাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ প্রশাসন       মাইকিং করে লোক হাজির করে সরেজমিনে বয়স্কভাতার কার্ড যাচাই বাছাই করে। এরপর ভাতা প্রদান করা হয়।

এ সময়  উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জনাব ওবায়দুল হক, সীমাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু গৌরদাস রায় চৌধুরি, ক্রাইম ডায়রির ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি ও জাতীয় সাংবাদিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন, সীমাবাড়ি ইউপি মেম্বর আব্দুল লতিফ ফকির সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

ক্রাইম ডায়রি///গ্রাম বাংলা//জেলা

Total Page Visits: 66747