• রবিবার ( রাত ১০:০৫ )
    • ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং

অতিরঞ্জিত অপপ্রচারে আমাদের দেশের ডেইরী শিল্প যেন ক্ষতিগ্রস্থ না হয়—মোজাম্মেল হক

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ-

হঠাৎ করেই  অস্থির ও অস্তিত্ব সংকটে   দেশের দুগ্ধশিল্প। ক্রমাগতঃ নেগেটিভ রিপোর্টে   জনসাধারণও অস্থিরতায় ভূগছে।। দেশীয় গাভীর দুধকে প্রক্রিয়া করতে গিয়ে যদি মাণহীন হয়ে পড়ে তবে তা আশংকাজনক না হয়ে পারেনা। তবে একটা বাস্তব কথা এই যে, গাভীর দুধ দহন করার পর এতে স্বাভাবিকভাবেই ব্যাকটেরিয়ার প্রভাব পরিলক্ষিত হয়।   সুতরাং দহিত দুধ ২৪ ঘন্টার মধ্যে যতই প্রসেসিং করা হোক ব্যাকটেরিয়া  কমবেশি ধরা পড়বেই।।। প্রাকৃতিক জিনিসে সাধারণ প্রযুক্তিতে   তা কতটুকু রোধ করা সম্ভব তাও যেমন ভেবে দেখতে হবে পাশাপাশি আদিকাল হতেই মানুষ দুধ দহন করে খেয়ে আসছে তাতেই বা কতটুকু স্বাস্থ্য ঝুঁকি হয়েছে তা মূল্যায়ন করে সিদ্ধান্ত নেয়া ভাল। এ ব্যাপারে দেশের সুশিল ও দেশপ্রেমিক মানুষেরা যারপরনাই উদ্বিগ্ন।  কারন, এরসাথে জড়িয়ে আছে দেশের শিল্প ও   কোটি যুবকের স্বপ্ন।

এ বিষয়ে RAB-4 ঢাকা এর অধিনায়ক মোঃ মোজাম্মেল হকের একটি বক্তব্য দেশবাসীর নজর কেড়েছে। দেশপ্রেমিক ও গণবন্ধু এই মানুষটির বক্তব্য জনস্বার্থে হুবহু তুলে ধরা হলোঃ–

“বাংলাদেশে অনেক কষ্টে শিক্ষিত বেকার ও কৃষক ভাইদের ঘামে শ্রমে এবং লাইভস্টক বিভাগের অক্লান্ত সহযোগীতায় ডেইরি খাত গড়ে উঠেছে। দুধে ক্ষতিকর মাত্রায় ব্যাকটেরিয়া এবং এন্টিবায়োটিকের উপস্থিতি সম্পর্কে মতামত দেয়ার পূর্বে এতদসংক্রান্তে বিশেষজ্ঞ প্যানেলের মতামত নেওয়া প্রয়োজন। জনস্বাস্থ্য সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পাবে। তবে কোন কারনেই যেন অনেক কষ্ট এবং ত্যাগের বিনিময়ে গড়ে উঠা আমাদের ডেইরি খাত ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে লক্ষ রাখা জরুরী। আমি ব্যক্তিগতভাবে আমার কর্মজীবনের
সাড়ে চার বৎসর লাইভস্টক বিভাগে চাকুরী করেছি। গ্রামের চাটমোহরে এখনো হাইব্রিড ২ টি গাভী প্রতিপালিত হচ্ছে। আমি জানি শিশু খাদ্য এবং ফুলক্রিম মিল্ক পাউডার আমদানির সংগে এদেশের অনেক বড় বড়সন্মানিত ব্যাবসায়ী জড়িত। তাদের অধিক লাভ এবং বাজার সম্প্রসারনের জন্য গ্রামের অসহায় গাভী পালনকারিগন যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে দিকটি
বিবেচনা করে অবশ্যই জনহিতকর সিদ্ধান্ত নিতে হবে। শুধুমাত্র দেশে উৎপাদিত গাভীর দুধ বিশেষজ্ঞ প্যানেল ছাড়া একটি নির্দিষ্ট বিভাগ কতৃক পরীক্ষা টানা করে নামে বেনামে বিভিন্নভাবে দেশে আমদানিকৃত সকল এধরনের গুঁড়ো দুধের মান পরীক্ষা এবং নিয়ন্ত্রন জরুরী। আমরা সকলেইস্বাস্হ্যকর বিশুদ্ধ পুষিটিকর দুধ পান করতে চাই। তবে সম্ভবত আমাদের খেয়াল রাখা জরুরী অযথা অতিরঞ্জিত অপপ্রচারের কারনে যেন আমাদের দেশের ডেইরি খাত ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।”

এই বক্তব্যে এটা স্পষ্ট যে সম্পুর্ণ বিশেষজ্ঞ প্যানেলের মতামত স্বাভাবিকভাবেই গণমানুষকে দুধ পাণের ব্যাপারে একটি স্বচ্ছ ও সু -ধারণা দিতে পারে। কোন অবস্থাতেই দুগ্ধশিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হোক জনগন তা কামণা করেনা।।

ক্রাইম ডায়রি//জাতীয়

5628total visits,79visits today

পুলিশ কনষ্টেবলদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন ওসি শিশির কুমার পাল

উজিরপুর প্রতিনিধিঃ

উজিরপুরে ব্যতিক্রমী আয়োজনে উজিরপুর মডেল থানার ওসি শিশির কুমার পাল। পুলিশ কনস্টেবল পদে সদ্য বাছাইকৃত উজিরপুর উপজেলায় নারীসহ ১১ জনের বিনা টাকায় স্বচ্ছ ভাবে যাচাই বাছাই শেষে সকলের হাতে ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে মিষ্টি বিতরণ করেন ওসি। ১৫ জুলাই সোমবার বেলা ১২টায় ওসির অফিস কার্যালয়ে এই ১১জনকে শুভেচ্ছা প্রদান
করে দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন ওসি তদন্ত হেলাল উদ্দিন। এ
সময় ওসি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ বাহিনীকে দূর্নীতি মূক্ত রাখতে যে ঘোষনা দিয়েছেন তার প্রেক্ষিতে বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি মোঃ সফিকুল ইসলাম পিপিএম বার বিপিএম ও জেলা পুলিশ সুপার এম সাইফুল ইসলাম পিপিএম, বিপিএম
মাত্র ১০৩ টাকায় চাকুরী দিলেন পুলিশ কনষ্টেবল পদে বরিশাল জেলার ৪৪ জনকে। জেলার ১৪টি উপজেলার মধ্যে উজিরপুরে নারীসহ ১১ জনের চাকুরী চূড়ান্ত হয়েছে। এই উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কোঠায় মাদার্শী গ্রামের ইশরাত জাহান রিয়া, আটক গ্রামের ইতি খানম,
সাকরাল গ্রামের বিশ্বজিৎ গাইন, হস্তিশুন্ড গ্রামের তানভিরুল হাসান, সাধারণ কোঠায় রামেরকাঠী গ্রামের সজল কর্মকার, খাটিয়ালপাড়া গ্রামের মোঃ রাজু আহম্মেদ, বড়াকোঠা গ্রামের মোঃ রাসেল সরদার, গড়িয়াগাভা গ্রামের ইউসুফ হাওলাদার, ইয়ামিন হাওলাদার, তেরদ্রোণ গ্রামের আশিষ চন্দ্র সমাদ্দার, নরসিংহা গ্রামের তৌফিকুজ্জামান পলাশ।

ক্রাইম ডায়রি//জেলা

5628total visits,79visits today