• বুধবার ( সকাল ৬:৪৮ )
    • ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে পূর্ব শক্রতার জেরঃ মুরগির খামারে হামলাঃ শতাধিক মুরগি মেরে ফেলার অভিযোগ

মোনায়েম হোসেন, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে পূর্ব শক্রতার জেরধরে মুরগির খামারে দফায় দফায় হামলা চালিয়ে শতাধিক মুরগি মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। এসময় সন্ত্রাসীদের হামলায় খামার মালিকসহ দুজন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের সিরাজগঞ্জের একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার রাতে ও সোমবার ভোরে উপজেলার ব্রম্মগাছা ইউনিয়নের কালিয়াবিল গ্রামে দফায় দফায় এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান,কালিয়াবিল গ্রামের হায়দার আলী একটি মুরগির খামার খুলে ব্যবসা করে আসছিল। রোববার রাতে একই গ্রামের হাবিবুর রহমানের সাথে পুর্বশক্রতার জেরধরে কথা কাটাকাটি হয়। পরে হাবিবুরের সাথে আবু বক্কার (৫৩),আব্দুল লতিফ (৪৫),ইব্রাহিম হোসেন (২৫),রোজেন আলী (৩০) ও রবিন আলী (১৮) সংঘবদ্ধ হয়ে রাতেই এসে খামারে হামলা চালিয়ে ভাংচুর চালায় এবং অর্ধশতাধীক মুরগি মেরে ফেলে। বিষয়টি রাতেই হায়দার আলী থানাকে অবহিত করে। এখবরে সন্ত্রাসীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে সোমবার ভোরে সংঘবদ্ধ দলটি আবারো খামারে হামলা চালায় এবং আরো ৫০টির অধিক মুরগি মেরে ফেলে। এসময় বাধা দিলে খামার মালিক হায়দার আলী (৫০) ও তার পুত্র উজ্জল হোসেন কে(২২) মারপিট করে গুরুতর আহত করে। আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জের একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


স্থানীয় ইউপি সদস্য আকবর আলী বলেন ঘটনার সাথে জড়িতদের বিচার হওয়া উচিত। ব্রম্মগাছা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম হাসনায়েন টিটু বলেন, সন্ত্রাসীরা এলাকায় বেপরোয়া চাঁদাবাজ। তারা এলাকায় চিহিুত সন্ত্রাসী। তারা যেঘটনাটি ঘটিয়েছে অত্যান্ত ন্যাক্কারজনক। তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে পুলিশ প্রশাসনে দৃষ্টি কামনা করেন। ব্রম্মগাছা ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার লিটন ঘটনা নিশ্চিত করে জানান তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনে রায়গঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এব্যাপারে রায়গঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এখনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে অভিযোগ পাওয়া গেলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম

Total Page Visits: 17098