বগুড়ায় বকসিসের জন্য অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেয়া সেই ঘাতক গ্রেফতার

Total Views : 673
Zoom In Zoom Out Read Later Print

মানবিকতা এখন যেন একেবারে তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। আইয়ামে জাহেলিয়াতের যুগের মানুষ জীবন্ত কন্যা শিশুকে কবর দিত সেই অবস্থারই আধুনিক সংস্করন চলছে এখন। নিজ পরিবারের প্রতিও যদি কারও ন্যুনতম মায়া থাকে তার পক্ষেও সম্ভবনা বিশেষ করে শিশুদেরকে নিয়ে মরণ খেলায় মেতে ওঠা। যেখানে কোন ‍ঘুষই লাগার কথা না বরং স্বসম্মানে স্যার ডেকে রোগীকে সেবা দেবার কথা সেখানে সামান্য পঞ্চাশ টাকা বকশিস কম দেওয়ায় অক্সিজেন মাস্ক খুলে স্কুল ছাত্রকে হত্যা এযেন হিংস্র বাঘের আক্রমনে মানুষ নিহত হবার মত ঘটনা

বগুড়ায়  বকসিসের জন্য অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেয়া সেই ঘাতক গ্রেফতার
ছবিটি প্রতিকী - অনলাইন মাধ্যম হতে সংগৃহীত

মানবিকতা এখন যেন একেবারে তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। আইয়ামে জাহেলিয়াতের যুগের মানুষ জীবন্ত কন্যা শিশুকে কবর দিত সেই অবস্থারই আধুনিক সংস্করন চলছে এখন।  নিজ পরিবারের প্রতিও যদি কারও ন্যুনতম মায়া থাকে তার পক্ষেও সম্ভবনা বিশেষ করে শিশুদেরকে নিয়ে মরণ খেলায় মেতে ওঠা। যেখানে কোন ‍ঘুষই লাগার কথা না বরং স্বসম্মানে স্যার ডেকে রোগীকে সেবা দেবার কথা সেখানে সামান্য  পঞ্চাশ টাকা বকশিস কম দেওয়ায় অক্সিজেন মাস্ক খুলে স্কুল ছাত্রকে হত্যা এযেন হিংস্র বাঘের আক্রমনে মানুষ নিহত হবার মত ঘটনা।

জাকির হোসেন রণি,উত্তরাঞ্চলীয় প্রধানঃ

মানবিকতা এখন যেন একেবারে তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। আইয়ামে জাহেলিয়াতের যুগের মানুষ জীবন্ত কন্যা শিশুকে কবর দিত সেই অবস্থারই আধুনিক সংস্করন চলছে এখন।  নিজ পরিবারের প্রতিও যদি কারও ন্যুনতম মায়া থাকে তার পক্ষেও সম্ভবনা বিশেষ করে শিশুদেরকে নিয়ে মরণ খেলায় মেতে ওঠা। যেখানে কোন ‍ঘুষই লাগার কথা না বরং স্বসম্মানে স্যার ডেকে রোগীকে সেবা দেবার কথা সেখানে সামান্য  পঞ্চাশ টাকা বকশিস কম দেওয়ায় অক্সিজেন মাস্ক খুলে স্কুল ছাত্রকে হত্যা এযেন হিংস্র বাঘের আক্রমনে মানুষ নিহত হবার মত ঘটনা। তবে বাংলাদেশের মানবিক বাহিনী র‌্যাব এর হাতে জড়িত আসাদুজ্জামান মীর ধলু (৪০) নামের সেই কর্মচারীকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার হয়েছ।তাকে ঢাকার আব্দুল্লাহপুর হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ১২ এর একটি চৌকস টিম।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের সুত্রে জানা গেছে,  মৃত শিশু বিকাশ চন্দ্র কর্মকার গাইবান্ধা উপজেলার সাঘাটা উপজেলার শিয়ালকুন্ডি গ্রামের বিশু চন্দ্র কর্মচারের ছেলে। সে স্থানীয় একটি স্কুলে ৮ম শ্রেণিতে পড়তো। সংসারে অভাবের কারণে বিকাশ লেখাপড়ার পাশাপাশি একটি ওয়ার্কশপে কাজ করতো। গত নভেম্বর ৯,২০২১ইং মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সে বাইসাইকেলে বাড়ি ফিরছিল। রাস্তায় একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। পরে তাকে প্রথমে সাঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রাত ১০টার দিকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বিকাশের কাকা শচীন চন্দ্র কর্মকার জানান, হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কাজ শেষে রাত সাড়ে ১০টার দিকে অক্সিজেনসহ তার ভাতিজাকে তৃতীয় তলায় সার্জারী বিভাগে নেওয়া হয়। ট্রলি বহণকারী হাসপাতালের কর্মচারি আসাদুজ্জামান মীর ধলু বেডে পৌঁছে দেওয়ার পর ২০০ টাকা বকশিস দাবি করে। বিকাশের বাবা কাছে থাকা ১৫০ টাকা দিলে দুলু আরো ৫০ টাকার জন্য বাকবিতন্ডা শুরু করেন।কিন্তু টাকা দিতে না পারায় ক্ষুব্ধ ধলু অক্সিজেন মাস্ক খুলে ফেলে । পরে তাকে মাস্ক লাগাতে অনুরোধ করা হলে সে অস্বীকৃতি জানায়।এতে বাধ্য হয়ে নিজেরা মাস্ক লাগালোর চেষ্টা করেন। এ সময় নাক-মুখ দিয়ে ফেনা বের হয়ে কিছুক্ষণের মধ্যে বিকাশ মারা যায়। চিকিৎসক এসে তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন। এ সময় রোগির লোকজন পাষান্ড ধলু ওপর চড়াও হলে সে কর্তব্যরত আনসারদের সহযোগিতায় পালিয়ে যায়।

SZMCH tragedy in Bogra: The killer who opened the oxygen mask for tips was arrested

ছিলিমপুর মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শামিম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রোগি মারা যাওয়ার পর উত্তেজনা দেখা দেয়। তখন তারা তৃতীয়তলায় গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। কিন্তু আগেই অভিযুক্ত কর্মচারি পালিয়ে যায়। ধলু গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কুমিরাডাঙ্গা গ্রামের জইনুদ্দিন মীরের ছেলে। সে হাসপাতালের খন্ডকালীন কর্মচারি। বুধবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে বিকাশের মরদেহ স্বজনরা নিয়ে গেছেন। দরিদ্র হওয়ায় তারা মামলার ব্যাপারে আগ্রহী নন বলেও জানান তিনি।

শজিমেকের উপ-পরিচালক ডা. আবদুল ওয়াদুদ জানান, জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মনির আলী আকন্দের নেতৃত্বে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা ৫ কর্মদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিবে। অভিযোগের সততা পেলে খন্ডকালীন কর্মচারি ধলুর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।র‌্যাব ১২ এর কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার সোহরাব হোসেন ক্রাইম ডায়রিকে জানান, সকল অমানবিকতা ও সাধারন জনগনকে যারা জিম্মি করে কষ্ট দেয় তারা সহ সকল অপরাধের বিরুদ্ধে র‌্যাব ১২ এর এমন অভিযান অব্যহত থাকবে। তিনি বলেন, ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনে ঘটনার ব্যাপারে বিস্তারিত বলা হবে।  

ক্রাইম ডায়রি// ক্রাইম-জেলা

See More

Latest Photos