• বৃহস্পতিবার ( দুপুর ২:৫৬ )
    • ২রা জুলাই, ২০২০ ইং

নকলবাজরা সাবধানঃডিবির অভিযানে নকল স্যাভলন ও স্যানিটারী সামগ্রী উদ্ধার

চাঁদপুর জেলা ব্যুরো অফিসঃ

করোনা ভাইরাস নিয়ে যখন মানুষ শংকিত,জীবন বাঁচানোর আকুতি নিয়ে যখন মানুষ দিশেহারা তখন জীবন রক্ষাকারী সামগ্রীর নকল বের করে মানুষ মারার নেশায় মত্ত একদল নরপশু। সম্প্রতি,  হঠাৎ করেই বাজার থেকে উধাও জীবানুনাশক স্যাভলন,স্যানিটাইজার ও হেক্সিসল। কোথায়ও খুজে যখন এগুলোর দেখা মিলছিল না ঠিক তখনই প্রতারকচক্র নড়েচড়ে বসে। নকল পণ্য বিভিন্ন বাসাবাড়িতে প্রোডাকশন করে অতি লোভের আশায় সিন্ডিকেট করে বাজারে বিক্রি শুরু করে। আর অরিজিনাল পন্যগুলো স্টক করে পাঁচগুন বেশিদামে বিক্রি শুরু করে বিএমএ ভবন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা এবং কিছু  ঔষধ কোম্পানির অসাধু কর্মকর্তারা। সেই সুযোগ কাজে লাগানো শুরু করে নকলবাজরা।  জীবাণুনাশক পণ্য স্যাভলন সহজলভ্য এবং উৎপাদন সহজ হলেও কৃত্রিম সংকটের কারনে নকলকারীরা  মহামারীর মধ্যেই ‘স্যাভলন’ ব্র্যান্ডের মত করে বিভিন্ন মানহীন, নকল পণ্য বাজারজাত করার চেষ্টা করছে। এর মধ্যে রয়েছে স্যাভ্লো, স্যাভ্লি, কোভ্লন, স্যাল্ভন ইত্যাদি বিভিন্ন নকল ব্র্যান্ড।

এই অসাধু ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করছে অনেক ফার্মেসির দোকানদার, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর ও মুদি দোকানের ব্যবসায়ীরা। এই ধরনের অসাধু ব্যবসায়ীরা নকল ও মানহীন পণ্য নিজেদের দোকানে রাখছেন এবং ক্রেতাদের কাছে বিক্রির মাধ্যমে সরাসরি তাদেরকে প্রতারিত করছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্য ফেসবুকের বিভিন্ন পেজের মাধ্যমেও বিক্রি হচ্ছে নকল এসব পণ্য।

এসব অসাধু ব্যবসায়ী ও খুচরা বিক্রেতার বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সম্প্রতি চাঁদপুর জেলার ডিবি পুলিশ একটি বাসার সন্ধান পায় যেখানে নকল ‘স্যাভলন’ ব্র্যান্ডের পণ্য মজুত করে রাখা হয়েছিল। এ সময় কলিম নামের একজনকে আটক করা হয়।

অভিযানে এক লিটার এর  কন্টেইনার ভেজাল ও নকল স্যাভলন, ৫০০ পিস হ্যান্ডওয়াশ ও স্যানিটাইজার জব্দ করা হয়। এই ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এই ঘটনা শুধু চাঁদপুরের নয় রাজধানীর পুরান ঢাকাসহ বিভিন্ন বাসা বাড়িতে এমন পন্য উৎপাদন করে আশে পাশেই বাজারজাত করছে অসাধু নকলবাজরা। তাই, এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকা প্রয়োজন বলে মনে করেন সুশীল সমাজ।

ক্রাইম ডায়রি///ক্রাইম//আইনশৃঙ্খলা

Total Page Visits: 32 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Send this to a friend