• শুক্রবার ( রাত ৪:৪৯ )
    • ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

পরীক্ষায় প্রক্সি নিয়ে বিপাকে মহিলা সাংসদঃ মিশ্র প্রতিক্রিয়া

অনলাইন ডেস্কঃঃ

গণতন্ত্রের মানসকন্যা,বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অন্যায়ের সাথে সবসময় আপসহীন। এদেশে না আসলেও তিনি নির্বিঘ্নে দিনাতিোত করতে পারতেন। কিন্তু দেশকে ভালবেসে পিতার রেখে যাওয়া অসমাপ্ত কাজ সোনার বাংলা গড়ার মানসে তিনি বারবার মৃত্যুভয়কে উপেক্ষা করে দেশের মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। তার এ কাজকে কলংকিত করতে একদল মানুষ সবসময় তার কাছে থেকেই দুরভিসন্ধিমূলক কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর মেয়ে তিনি।।তাই অন্তরে তার চরম মায়া।।বারবার তিনি সবাইকে ক্ষমা করেছেন।কিন্তু যখনই তার পাশে থেকে বঙ্গবন্ধুর সন্তানতুল্য এদেশের মানুষকে জুলুম করা হয়েছে,ঠকানোর চেষ্টা করা হয়েছে ঠিক তখনই তিনি কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন। সুতরাং,  কেউ পার পাবেনা।।      প্রতারণা তো প্রতারণাই।সে যেই তা করুক।।সে তার শাস্তি পাবেই।।এটাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ।              ঘটনা  ——

উচ্চশিক্ষার সার্টিফিকেট লাভের আশায় প্রতারণা ও জালিয়াতির আশ্রয় নেন জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি তামান্না নুসরাত বুবলী। বিষয়টি সারাদেশে তোলপাড় সৃষ্টি করে।

এনিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। এএফপি, দ্য গার্ডিয়ান, মালয়েশিয়ান সংবাদ মাধ্যম নিউ স্ট্রেইটস টাইসম, ফ্রান্স২৪ ডট কমের মত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এনিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে।

নিজে পরীক্ষা না দিয়ে পরপর ৮টি পরীক্ষায় অংশ নেয় তার পক্ষে প্রক্সি পরীক্ষার্থীরা। বিএ পরীক্ষার শেষ পরীক্ষা দিতে গিয়ে হলে হাতেনাতে ধরা পড়েন এশা নামে এক শিক্ষার্থী। এঘটনায় এমপি তামান্না নুসরাত বুবলীকে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ বহিষ্কার করে।

গার্ডিয়ানের শিরোনামে বলা হয়, বাংলাদেশী এমপির পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য আটজনকে ভাড়া করার অভিযোগ।

ভেতরে উল্লেখ করা হয়েছে, আওয়ামী লীগের তামান্না নুসরাতের বিরুদ্ধে কমপক্ষে ১৩টি পরীক্ষায় প্রক্সি পরীক্ষার্থী নিয়োগ দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদের হয়ে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্যে আটজনকে নিয়োগের অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সেই এমপিকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের এমপি তামান্না নুসরাত কমপক্ষে ১৩টি পরীক্ষা নিজে না অংশ নিয়ে তার পক্ষে প্রক্সি পরীক্ষার্থী দিয়ে পরীক্ষা দেয়ানো হয়। বেসরকারি নাগরিক টিভিতে সংবাদ প্রকাশের পর তা ভাইরাল হয়।

তামান্ন নুসরাত গত বছর সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বিএ পরীক্ষা দিচ্ছিলেন।

কলেজের একজন কর্মকর্তা বলেছিলেন, এমপির প্রক্সি প্রার্থীকে সুবিধা দিতে পরীক্ষাকে কেন্দ্রসহ হল পাহারায় থাকতেন এমপির লোকজনসহ ক্যাডার বাহিনী। তাই ভয়ে ছাত্র-শিক্ষক কেউই মুখ খুলতে পারে না।

এছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে এমপি বুবলীকে নিয়ে কাছাকাছি ধরণের সংবাদ প্রকাশ করে।  এ নিয়ে চরম ইমেজ সংকটের সৃষ্টি হয়েছে  শিক্ষিতমহলে। তবে, বিষয়টি খতিয়ে দেখা উচিত বলে মনে করে ক্রাইম ডায়রি। কারন, বিশৃঙ্খল অবস্থার শিকারও তো অনেক সময় হতে হয়।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম

Total Page Visits: 94 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Send this to a friend