• রবিবার (সকাল ৮:১৭)
    • ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বগুড়ার ধুনটে এবার করোনার লক্ষণজনিত রোগীঃ লকড ডাউনে পরিবার

ধুনট হতে আব্দুল হাদীঃ

শান্ত উপজেলা বগুড়ার ধুনটে এবার দেখা মিলল করোনা লক্ষণজনিত এক রোগীর। যদিও তার করোনা হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা সাপেক্ষ। তবে করোনাভাইরাস উপসর্গ নিয়ে মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশন কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন হলে তার নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন আসার আগেই তার বাড়িসহ তিনটি বাড়ি লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা  সাংবাদিকদের বলেন, উপজেলার সকল জনগনই আমাদের অতি আপনজন। অসুস্থ ব্যক্তির পরিবারসহ এলাকার জনগনের স্বার্থে লকডাউন করা হয়েছে।  করোনা যেহেতু মাধ্যমে ছড়ায় তাই কোন ঝুকি না নিয়ে লকডাউন করায় ইউএনও এর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন স্থাণীয় জনগন। তবে ইউএনও জানিয়েছেন এসব পরিবারে খাদ্য সরবরাহ করা হবে।

স্থানীয়রা জানান, ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন। ২৪ মার্চ জ্বর, সর্দি, কাশি রোগে আক্রান্ত হয়ে শিয়ালী গ্রামের বাড়িতে আসেন। এরপর সে আরও অসুস্থ হলে পরিবার তাকে ২৯ মার্চ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে করোনা আইসোলেশন কেন্দ্র মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

বুধবার হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার নমুনা সংগ্রহ করে বৃহস্পতিবার রাজশাহী ল্যাবে পাঠায় বলে জানা গেছে।

ক্রাইম ডায়রি/// জেলা//স্বাস্থ্য

 

Total Page Visits: 66756

ফেনীর সোনাগাজিতে দোকান খোলা রাখায় ২১জনকে অর্থদন্ড

ফেনী সংবাদদাতাঃ

সরকারের নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলা রাখা এবং অকারণে দোকানে অবস্থান করায় ফেনীর সোনাগাজীতে ২১ জনকে ২১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এরমধ্যে দুজনের কাছ থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত দোকান বন্ধ রাখার মুচলেকা নেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অজিত দেব এ জরিমানা করেন। অজিত দেব জানান, বিকাল ৫টা থেকে রাত পৌনে ১০টা পর্যন্ত উপজেলার ওলামাবাজার, নবিউল্লার বাজার, ইতালি বাজার, মতিগঞ্জ বাজার, মতিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড, হাজিস্ট্যান্ড, বক্তারমুন্সি বাজারে অভিযান চালানো হয়।

ইউএনও আরও জানান, সোনাগাজীর সকল ব্যবসায়ী ও জনসাধারণকে সরকারের জারিকৃত বিজ্ঞপ্তি মেনে চলার জন্য বলা হয়েছে। অন্যথায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সোনাগাজীবাসীকে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য যা যা প্রয়োজন তাই করা হবে। বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর স্বার্থে গুটিকয়েক আইন অমান্যকারীকে ছাড় দেয়া হবে না বলে তিনি উল্লেখ কনে।

প্রসঙ্গত, ২৪ মার্চ ইউএনও স্বাক্ষরিত একটি জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের লক্ষ্যে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ওষুধের দোকান, কাঁচামাল ও মুদি দোকান ব্যতীত সকল দোকান ও বাজার বন্ধ থাকবে।

এতে বলা হয়, ওষুধের দোকান সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে এবং মুদি দোকান ও কাঁচামালের দোকান সকাল ৮টা হতে বেলা ১২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। একইসাথে অপ্রয়োজনে রাস্তায় ঘোরাফেরা না করে সবাইকে ঘরে থাকতে বলা হয়।

ক্রাইম ডায়রি//গ্রামবাংলা //আদালত

Total Page Visits: 66756

সাতক্ষীরাই সর্দিজ্বরে কলেজছাত্রের মৃত্যুঃ এলাকায় করোনা আতংক

সাতক্ষীরা হতে জুলহাসঃ

সারাদেশের মত সীমান্তশহর সাতক্ষীরাতেও রয়েছে প্রশাসনের কড়া নজরদারী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আহবান বাড়ি থাকুন,সুস্থ থাকুন। এই শ্লোগানকে বাস্তবায়নেে র‌্যাবসহ সকল বাহিনীই তৎপর। এরই মাঝে সাতক্ষীরার নারায়নপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে বৃহস্পতিবার রাতে জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।  হাসান আলী (২০) নামের এই ছাত্রটি ঝাউডাঙ্গা কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং ওই গ্রামের বাহারুল ইসলামের ছেলে।

কলেজছাত্রের মা রোজিনা খাতুন জানান, কয়েকদিন ধরে গায়ে জ্বর থাকায় তার ছেলের শরীর দুর্বল হয়ে পড়েছিল। স্থানীয় গ্রাম্য চিকিৎসকের ওষুধ তাকে খাওয়ানো হয়, তবে এতে কোনো উন্নতি হয়নি। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে হাসানের মৃত্যু হয়।

বল্লী ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইরাদ আলী জানান, গত ৬-৭দিন ধরে হাসান জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিল। তার মৃত্যুর খবরে এলাকা জুড়ে করোনা আতংক বিরাজ করছে। ওই বাড়ির আশেপাশেও এখন কেউ আসছেন না। স্থানীয় গ্রাম পুলিশ দিয়ে বাড়িটি পাহারায় রাখা হয়েছে।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন সাফায়াত জানান, কলেজছাত্রের মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর একটি মেডিকেল দল সেখানে পাঠানো হয়েছিল। তারা তার শরীরে করোনার ভাইরাসের কোনো লক্ষন পাননি।অবশ্য মৃতের শরীরের কোন নমুনা পরীক্ষা ছাড়াই তিনি এই মন্তব্য করেন।পাশাপাশি অবশ্য তিনি বলেন, পরিবারের সদস্যরা রাজী থাকলে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য হাসানের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) কাছে পাঠানো হবে।

এদিকে সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় বিদেশফেরত আরও ৪৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয়েছে। এ নিয়ে মোট ২ হাজার ৮৯৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে আরও ৬৯৬ জনকে। পুরো সাতক্ষীরাজুড়ে রয়েছে র‌্যাবের কড়া পাহাড়া ।সরকারী নির্দেশ বাস্তবায়নে এই বাহিনীর প্রতিটি সদস্য জীবনবাজি রেখে জনগনকে গৃহমুখী করেছে এবং পাশাপাশি তাদের মিষ্ট আচরন দ্বারা জনবান্ধব বাহিনী হিসেবে নিজেদের অবস্থান প্রকাশ করেছে বলে স্থানীয় জনতাদের দাবী।

ক্রাইম ডায়রি//জেলা//স্বাস্থ্য

Total Page Visits: 66756

করোনার কার্যকরী ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবী মার্কিন বিজ্ঞানীদের

অনলাইন ডেস্কঃ

সারাবিশ্ব যখন করোনা আতংকে অস্থির তখন যথার্থই সুখবর দিয়েছেন মার্কিন বিজ্ঞানীদের একটি দল। আন্তর্জাতিক গনমাধ্যমগুলোর বরাতে জানা গেছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ার পিটসবার্গ ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছেন বলে দাবি করছেন। নিউইয়র্ক পোস্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ভ্যাকসিনটি রোগের বিস্তারকে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করতে দ্রুত কার্যকর হতে পারে বলে গবেষকেরা এক ঘোষণায় জানিয়েছেন। নতুন এই ভ্যাকসিনের তারা নাম দিয়েছেন ‘পিটকোভ্যাক’। যার পূর্ণরূপ পিটসবার্গ করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন।

এই গবেষক আরও বলেন, ‘বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানীরা ভ্যাকসিন আবিষ্কারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে সবার আগে এটি তৈরি করাটা জরুরি। আমাদের সেই ক্ষমতা এবং দক্ষতা রয়েছে।’

ভ্যাকসিনটির অনুমোদনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য এবং ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) এর কাছে আবেদন জানিয়েছেন গবেষকেরা। তারা আশা করছেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে মানুষের শরীরে তারা ভ্যাকসিনটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ১৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাকারে এমন তথ্যই দেখিয়েছে।

বৈশ্বিক মহামারীটি শুরু হওয়ার পর কোনো দেশে একদিনে এটিই সর্বোচ্চ মৃত্যুর সংখ্যা। বুধবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে পরদিন একই সময় পর্যন্ত এসব মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে গত ২৭ মার্চ ইতালিতে একদিনে ৯৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত পাঁচ হাজার ৯২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আক্রান্তের সংখ্যায় দেশটি আগে থেকেই সবার চেয়ে এগিয়ে ছিল। বৃহস্পতিবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ সংখ্যা দুই লাখ ৪৫ হাজার ছাড়িয়ে।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের ছোবল থেকে বাঁচতে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ নানান বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের মোট জনগোষ্ঠীর ৯০ শতাংশের বেশি এখন ঘরবন্দির নির্দেশনার আওতায়।

দেশটিতে ঘণ্টায় ঘণ্টায় বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কেবল নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যেই মৃতের সংখ্যা আড়াই হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। আক্রান্ত ও মৃত্যু বিবেচনায় পরের অঙ্গরাজ্যগুলো হচ্ছে নিউ জার্সি, ক্যালিফোর্নিয়া, মিশিগান ও লুইজিয়ানা। আন্তর্জাতিক মানবসমাজের দাবী তিনমাস পরে নয় যতদ্রুত সম্ভব ভ্যাকসিনটি বাজারজাতের উপযুক্ত করা । তা না হলে আগামী তিনমাস পর হয়তো ভ্যাকসিন প্রয়োগের জন্য আর কেউ অবশিষ্ট থাকতে নাও পারে।

ক্রাইম ডায়রি// আন্তর্জাতিক

Total Page Visits: 66756

রোগীরা সেবা না পেয়ে ফিরে গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে-স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ

ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল কাকরাইলের একটা দৃশ্য ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছিল কয়েকদিন আগে। সেখানে দেখা গেল ডাক্তাররা চেম্বারে বসবেন না মর্মে সার্কুলার দিয়েছেন। করোনা ভীতি শেষ হলে তবেই তারা চেম্বারে বসবেন।

করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে হাসপাতাল ও ডাক্তারের চেম্বারে গিয়ে চিকিৎসা না পেয়ে ফেরত আসার অভিযোগ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের জনসাধারনের।  সারাদেশেই যখন অতিপরিচিত হাতুরে কিংবা বিশেষ ডাক্তার বলে পরিচিতরা এমন অবস্থা করা শুরু করলেন তখন সরকারের মাননীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেকের একটি উচ্চারন জনমনে আশা জাগিয়েছে। তিনি বলেছেন, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও প্রাইভেট চেম্বারগুলো থেকে রোগীরা সেবা না পেয়ে ফিরে গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

করোনার সবশেষ পরিস্থিতি জানাতে শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে তিনি এ হুশিয়ারি দেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে করোনা শনাক্ত হওয়ার পর বেসরকারি হাসপাতালগুলো সেবা কম দিচ্ছে। ক্লিনিক ও চেম্বারগুলো অনেকাংশে বন্ধ আছে। কাজেই জাতির এই দুঃসময়ে আপনাদের পিছপা হওয়াটা যুক্তিযুক্ত নয়।

চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি মন্ত্রীর আহ্বান, আপনারা মানুষের পাশে দাঁড়ান, মানুষকে সেবা দিন। আমরা কিন্তু এটা লক্ষ্য করছি। পরবর্তীকালে যা যা ব্যবস্থা নেয়ার আমরা কিন্তু সেসব ব্যবস্থা নিতে পিছপা হব না। মন্ত্রী জানান, নতুন করে ৫ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে ৬১ জন করোনা রোগী রয়েছেন দেশে।

করোনাভাইরাসের লক্ষণ-উপসর্গ দেখা দিলে পরীক্ষা করার আহ্বান জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, আশা করি সবাই পরীক্ষা করার জন্য আসবেন। পরীক্ষা করলে নিজেও নিরাপদে থাকবেন, পুরো দেশেই নিরাপদ থাকবে।

ক্রাইম ডায়রি/// জাতীয়

Total Page Visits: 66756