• রবিবার (ভোর ৫:৪৫)
    • ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

জনশুন্য নিউইয়র্কঃ করোনার থাবায় আক্রান্ত ক্ষমতাধর আমেরিকা

মোঃ এনায়েত হোসেন, নিউইয়র্ক হতেঃ
নিউ ইর্য়কে স্টেট ইর্মাজেন্সি: জনশূন্য শহর, নেমে এসেছে ভয়াবহ বিপর্যয়।প্রাণঘাতি নভেল করোনা ভাইরাসের প্রভাবে নিউ ইর্য়কে স্মরণকালের ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে এসেছে। সিটি মেয়র ডি ব্লাজিও স্টেট ইর্মাজেন্সি ঘোষণা করেছেন।

আমেরিকার স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে এ পর্যন্ত ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নিউ ইর্য়কে ৯৫ আক্রান্ত হয়েছেন, যা গতকাল পর্যন্ত ছিলো ৫৫ জন। সামনে আক্রান্তের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে আশঙ্কায় সিটি মেয়র জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক জরুরি ব্রিফিংয়ে নিউ ইর্য়ক সিটি মেয়র ডি ব্লাজিও জানান, পরিস্থিতি খারাপের দিকে যেতে পারে আশঙ্কা ও সর্তকতায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। তবে তিনি বলেন, যে দুটো স্কুল বন্ধ করা হয়েছে সেখানে আক্রান্ত শিক্ষার্থী সনাক্ত হয়েছে বিধায় অন্যদের স্বাস্থ্য সর্তকতা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। কিন্তু পরিস্থিতি এমন হয়নি যে, অন্যসব স্কুল বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিতে হবে। তবে নিউ ইর্য়কের বাসিন্ধারা বলছেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় শহরের সব স্কুল ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া উচিত।
এদিকে শহর জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। চারিদিকে সুনাশান নিরবতা। কোথাও তেমন কোনো জনসমাগম নেই। বলা হচ্ছে, স্মরণকালের ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে নিউ ইর্য়কে। বিশেষ করে শহরের সমস্ত থিয়েটার, মিউজিয়াম, ব্রডওয়ে আড্ডাখানা এরইমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে। নিষিদ্ধ করা হয়েছে বড় ধরনের যে নোকো সভা-সমাবেশ। বার-রেস্টুরেন্ট বলতে গেলে প্রায় অচল হয়ে পড়েছে। জনশূন্য নগর। শহরের এমটিএ (মেট্রোপলিটন ট্রান্সপোর্ট অথোরেটি) সার্ভিস একেবারে জনশূন্য হয়ে পড়েছে। যেখানে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের আনাগোনা থাকে। তা এখন একেবারে জনশূন্য।
আর রাজ্য গর্ভণর জানিয়েছেন, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া প্রায় এক মিলিয়ন মানুষ কোথাও যাতায়ত করছেন না।
অন্যদিকে এরআগে ওয়াশিংটন ডিসি ও পেনসিলভেনিয়ায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়।

এদিকে ফেসবুকসহ অন্যসব সোশ্যাল মিডিয়ার যে কোনো ধরনের গুজবে সাড়া না দেয়ার আহবান জানিয়েছেন নিউ ইর্য়ক সিটি মেয়র।

ক্রাইম ডায়রি//আন্তর্জাতিক///স্পেশাল

Total Page Visits: 66724