• বৃহস্পতিবার (রাত ১২:২৮)
    • ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সি আই ডি’র বিশেষ সফলতাঃ বিকাশ ও লটারী প্রতারক চক্রের মূল হোতা গ্রেফতার

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ

বিকাশের মাধ্যমে প্রতারনা করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা নতুন কিছু নয়। গ্রাম বাংলার সহজ সরল মানুষের সরলতার সুযোগ নিয়ে একদল প্রতারক চক্র নিজেদেরকে প্রশিক্ষিত করে মোবাইল কোম্পানিগুলোর কর্মকর্তা সেজে বিভিন্ন প্রলোভনে টাকা আদায় করে। এক্ষেত্রে হাতিয়ার হিসেবে কাজ করে মানুষের অসীম লোভ।

একটি মামলাকে কেন্দ্র করে এমনই একটি প্রতারকচক্রকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়েছে  সি আই ডি পুলিশ। সি আইডি সুত্রে জানা গেছে, খিলগাঁও (ডিএমপি) থানায় করা বিগত ২৯/০৬/২০১৮ খ্রিঃ একটি মামলা যার নং ৭১ ও ধারা-৪০৬/৪২০/১০৯ (পেনাল কোড) এর জের ধরে বিশেষ কৌশল ব্যবহার করে ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানাধীন আজিমনগর ইউনিয়নের মধ্য ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে

রুবেল মুন্সি নামের একজনকে গ্রেফতার করে।  সে  ছদ্ম নাম ব্যবহার করে মোবাইল ফোনে লটারীর প্রলোভন দেখিয়ে বিকাশের মাধ্যমে টাকা আত্মসাৎকারী প্রতারকচক্রের মাষ্টারমাইন্ড ও দলনেতা বলে সি আই ডি পুলিশ সুত্রে জানা গেছে। জানা গেছে, এই রুবেল ফরিদপুর জেলাট ভাঙ্গা থানার মধ্য ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামের টোকন মুন্সি ও চায়না বেগমের ছেলে।  এ সময় তার কাছ থেকে ০৮টি মোবাইল ফোন এবং ১২টি বিভিন্ন কোম্পানর সীম কার্ড উদ্ধার করে আলামত হিসাবে জব্দ করা হয়। জানা যায়, রুবেল ও তার অন্যান্য সহযোগীরা মিলে বিভিন্ন মোবাইল  ফোন ব্যবহারকারীদের নিকট মোবাইল ফোনের মাধ্যমে গ্রামীণ/রবি/বাংলালিংক/ এয়ারটের/টেলিটক কোম্পানী থেকে লটারীতে গাড়ী, বাড়ী, অর্থ পুরস্কার হিসাবে পেয়েছেন বলে প্রলোভন দেখায়।

এমন ভাবে ঘটনাটি বিশ্বাসযোগ্য করে তোলে যে; যে কেউ লটারির ঘটনা বিশ্বাস করে।  এ ক্ষেত্রে নিয়ামক হিসেবে কাজ করে মানুষের অসীম লোভ। এরপর  মোটা অংকের টাকা একাধিক বিকাশ একাউন্ট নাম্বারের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়। উক্ত আসামী ও তার সহযোগীরা মিলে বনশ্রী এলাকার বাসিন্দা দ্বীন মোহাম্মদ(৫০), পিতা- মৃত মোহাম্মদ আলী, সাং- বাসা নং-৯, ব্লক-ই, মেইন রোড, দক্ষিণ বনশ্রী, থানা- খিলগাঁও, ডিএমপি, ঢাকা এর কাছ থেকে ১২২টি বিকাশ একাউন্ট নাম্বারের মাধ্যমে সর্বমোট ৫৫,০০,০০০/- (পঞ্চান্ন লক্ষ) টাকা আত্মসাৎ করে নেয়। মামলাটি সি আই ডিতে আসে তদন্তের জন্য।

সি আইডি’র দক্ষ কর্মকর্তা ও বিশেষ পুলিশ সুপার (ঢাকা মেট্রো পূর্ব) জনাব কানিজ ফাতেমা এর নির্দেশে ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে মামলাটির তদন্তের দায়িত্বে থাকা  কর্মকর্তা (ডেমরা ইউনিট, ঢাকা মেট্রো পূর্ব) এস আই আকসাদুজ্জামান  এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ কৌশলী ফাঁদে এদের গ্রেফতার করে।

ক্রাইম ডায়রি///   অপরাধজগত//আইন শৃঙ্খলা

Total Page Visits: 66417