• সোমবার (বিকাল ৩:৪৭)
    • ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

চাঁদাবাজ কোন দলের নয়ঃ ঝালকাঠিতে চাঁদাবাজির কারনে সাবেক নেতা অস্ত্র ও সঙ্গীসহ গ্রেফতার

ইমাম বিমান, ঝালকাঠি থেকে  :
বঙ্গকন্যা ও লৌহমানবী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সততার নীতির কাছে কোন অপরাধীর ছাড় নেই। সে যেই হোক।  অপরাধী কোন দলের নয়, আর আওয়ামীলীগ ও এর কোন অনুমোদিত অঙ্গ সংগঠনের কথা বলে চাঁদাবাজি কিংবা ধান্দাবাজির কোন সুযোগ নেই। বড় বড় বাঘা ব্যাক্তিরা যেখানে অন্যায় করে সুযোগ পাননি সেখানে অন্যায়কারী যে কারো অবস্থা কি হতে পারে তা অনুমেয়। এরই ধারাবাহিকতায় ও জনগনের অভিযোগের   প্রেক্ষিতে ঝালকাঠিতে চাঁদাবাজি মামলায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাদিসুর রহমান মিলন সহ ৬ জনকে গ্রেফতার সহ বিপুল পরিমান অস্ত্র উদ্ধার করেছে ঝালকাঠি সদর থানা পুলিশ।
এ বিষয় ঝালকাঠি সদর থানার ওসি মো. খলিলুর রহমান জানান, জেলা শহরের বিকনা এলাকার কামাল হোসেন হাওলাদার নামের এক ঠিকাদারের কাছে মাসিক ৫০ হাজার টাকা চাঁদার দাবী করে আসছে ছাত্রলীগ নেতা মিলন। চাঁদার বিষয় ঠিকাদার কামাল স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জালানে মিলন ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজন নিয়ে গত ৫ জানুয়ারি ঠিকাদার কামাল হোসেনকে মারধর করে। পরে কামাল হোসেন এ ঘটনায় মিলনসহ ৭ জনকে অভিযুক্ত করে সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করে। কামালের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৪ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) দিবাগত রাতে শহরের ডাক্তারপট্টি এলাকায় ছাত্রলীগ নেতা মিলনের বাসায় পুলিশ অভিযান করে মিলনসহ ৪ জনকে আটক করে। সেই সাথে গ্রেফতারের সময় সাবেক এ ছাত্রলীগ নেতার  বাসায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১১টি দেশীয় ধারালো রামদা ও ৪টি পাইপ উদ্ধার করে। পরে শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপর ২জন আটক করে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাদিসুর রহমান মিলন, ঝালকাঠি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি তরিকুল ইসলাম অপু,  মামুন খান, সাইফুল ইসলাম, পলাশ দাস ও মামুনুর রশিদ ওরফে কঠিন মামুন চাঁদাবাজি মামলায় এবং পুলিশের দায়েরকৃত অস্ত্র মামলায় হাদিসুর রহমান মিলন, তরিকুল ইসলাম অপু,  মামুন খান ও সাইফুল ইসলামকে আসামী করা হয়েছে।
এছাড়াও মিলনের কাছে আরও অস্ত্র রয়েছে বলে পুলিশ ধারনা করছে। সদর থানার ওসি খলিলুর রহমান চাঁদাবাজির মামলায় অভিযুক্ত অপর আসামীকেও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে ক্রাইম ডায়রিকে জানিয়েছেন।
Total Page Visits: 66253

দার্জিলিং ও শিলিগুড়িতে এখন থেকে সরাসরি যাওয়া যাবে

অনলাইন ডেস্কঃ

ভারতের বাংলা অংশ  পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং এবং শিলিগুড়ির সঙ্গে সড়কপথে সরাসরি যোগাযোগ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে  বাংলাদেশ। আগামী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গের এ দুই পর্যটন এলাকায় সরাসরি বাস সেবা চালু হচ্ছে বলে জানিয়েছে  দ্য ইকোনমিক টাইমস, জাগোনিউজ ও আমাদের অর্থনীতি অনলাইন।  এ সুত্রগুলোতে  জানা গেছে, নতুন এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সীমান্তে যাত্রীদের আর বাস পরিবর্তন করতে হবে না। বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের এক বৈঠকে আঞ্চলিক নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জানা গেছে এর আগে, বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের (বিবিআইএন) আঞ্চলিক মোটরযান চুক্তি (এমভিএ) স্থগিত হয়ে যায়। বিবিআইএন-এমভিএ চুক্তি থেকে ভুটান সাময়িকভাবে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার পর এই চুক্তি থমকে আছে।  দ্য ইকোনমিক টাইমস বলছে, ঢাকা-শিলিগুড়ি-গ্যাংটক (সিকিম)-ঢাকা এবং ঢাকা-শিলিগুড়ি-দার্জিলিং-ঢাকা রুটে পরীক্ষামূলক বাস চালুর পরিকল্পনা করেছে ঢাকা।

ক্রাইম ডায়রি///আন্তর্জাতিক//জাতীয়

 

Total Page Visits: 66253