• রবিবার (সকাল ৭:২৬)
    • ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ঝালকাঠিতে অটো গ্যারেজে অগ্নিকান্ডে ২জন আহতঃ অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি 

ইমাম বিমান, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি  :
ঝালকাঠি জেলার নলছিটি পৌরসভাধীন কান্ডপাশায় এলাকার একটি অটো রিক্সা গ্যারেজে অগ্নিকান্ডে একজন আহত সহ প্রায় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানাযায়। গত ৩১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে নলছিটি কান্ডপাশা এলাকার একটি অটো গ্রেজে বিদ্যুতের সর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা মনে করছেন।
এ বিষয় নলছিটি ফায়ার সার্ভিস এর ষ্টেশন অফিসার গোলাম মোস্তফার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, রাত অানুমানি সাড়ে এগারোটার সময় আমরা সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থানে ছুটে যাই।  প্রায় বিশ মিনিট পর আমরা ঘটনা স্থানে পৌছে দেড়ঘন্টা ব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়েছি। তার মধ্যে গ্যারেজ থেকে প্রায় আনুমানিক ২০ লক্ষধীক টাকার মালামাল উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও অগ্নীকান্ডের ঘটনায় গ্যারেজের প্রায় ১৫ লক্ষাধীক টাকার ক্ষতি সাধান হয়েছে বলে আমরা মনে করছি।  আমরা ঘটনা স্থানে পৌছানোর আগে গ্যারেজের মধ্যে লিমন ও মাসুদ খান নামের দুজন লোক ঘুমিয়ে থাকার কারনে তারা অগ্নীদগ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়।
পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে বরিশাল শেরেই- বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় শেবাচিমে নিয়ে যায়। তবে আহত দুজনের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী লিমন গুরুতর আহত হয়েছে বলে আমরা জানতে পারি। নলছিটি ফায়ার ষ্টেশন থেকে কান্ডপাশায় এলাকায় যেতে বিশ মিনিট সময় লাগার কারন ষ্টেশন অফিসারের কাছে জানতে চাওয়া হলে এ বিষয় তিনি জানান, রাস্তার সংস্কারের কাজ চলায় গাড়ী নিয়ে যেতে আমাদের একটু বেগ পেতে হয় তারপর প্রতিকুলতা কাটিয়ে আমরা দ্রুত পৌছানোর চেষ্টা করি। প্রচন্ড ঠান্ডা তারপরও পানি দিয়ে অগ্নীকান্ডের ঘটনায় অাগুন সম্পূর্ন নিয়ন্ত্রনে এনে আমরা চলে আসি। সকাল থেকেই আমি সহ আমাদের কয়েজন ফায়ার কর্মীর ঠান্ডাজনিত রোগ দেখা দিয়েছে। তবে অগ্নীকান্ড ঘটনার সূত্রপাত হিসেবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে হয়েছে বলে ষ্টেশন অফিসার মনে করেন।
স্থানীয়দের মাধ্যমে জানাযায়, নলছিটি পৌর এলাকার কান্ডপাশা গ্রামের শাহাদাৎ হোসেনের পুত্র মো: মাসুদ বেকারত্ব দূরীকরণের জন্য বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋণ গ্রহণ করে ৮টি ব্যাটারী চালিত অটো ও দু’টি মোটরসাইকেল ক্রয় করে ভাড়া দেওয়ার পাশাপাশি নলছিটি -দপদপিয়া সড়কের পার্শ্বে কান্ডপাশা এলাকায় বৃহৎ একটি গ্যারেজ নির্মাণ করে। ওই গ্যারেজে তার নিজের যানবাহনের পাশাপাশি ব্যাটারী চার্জ দেওয়ার জন্য আরো ৩০ টি ব্যাটারী চালিত অটো, ৪টি অটো ভ্যান,১ টি অটো রিকশা ও দুটি মোটরসাইকেল ছিল। ওই গ্যারেজে কান্ডপাশা এলাকার মালেক জমাদ্দারের এএএসসি পরীক্ষার্থী পুত্র লিমন ঘুমিয়ে ছিল। গভীর রাতে বিদ্যুতের সর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগলে মুহূর্তেই গ্যারেজটি সম্পূর্ণরুপে ভস্মীভূত হয়ে যায়। গ্যারাজে ঘুমিয়ে থাকা লিমন আগুনে পুড়ে গুরুত্বর আহত হলে তাকে উদ্বার করে বরিশাল শেরে ই বাংলা মেডিকেলে নেয়া হয়। তার অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। এদিকে বেকার যুবক গ্যারেজের মালিক মাসুদ খান ওই অগ্নিকান্ডে সর্বস্ব হারিয়ে পাগলপ্রায়। মাসুদ গ্যারেজ পুড়ে যাওয়ার খবর পেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তাকে ডাক্তার এনে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
ক্রাইম ডায়রি//জেলা//ক্রাইম
Total Page Visits: 66749

র‌্যাব-৪ এর অভিযানঃ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম এর ০২ সদস্য গ্রেফতার

আরিফুল ইসলাম কাইয়ুমঃ

 

সারাদেশে ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে      র‌্যাব-৪ এর অভিযানে রাজধানীর গাবতলী ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইল হতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম এর ০২ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাবের গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল অদ্য ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ মঙ্গলবার সকাল হতে  বিকাল পর্যন্ত  টানা অভিযান পরিচালনা করে গাবতলী বাসস্ট্যান্ড ও টাঙ্গাইল হতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম এর ০২ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এতে দু’জনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেনঃ–  টাঙ্গাইলের মোঃ তাভী খাঁন (২১) এবং মুন্সিগঞ্জের মোঃ সোহাগ হাওলাদার সোহাগ (২৫)।

জিজ্ঞাসাবাদে এরা নিজেদেরকে  নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম এর সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকারোক্তি প্রদান করে। এ সময় তাদের হেফাজতে থাকা  জঙ্গি সংগঠনের বিভিন্ন ধরনের উগ্রবাদী সম্পর্কিত বই, উগ্রবাদী ডিজিটাল কনটেন্ট ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায়, তারা গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার বিপক্ষে, তাদের মতে এই ব্যবস্থা তাগুতি বা বাতিল। তারা এই গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থাকে অবৈধ হিসেবে আখ্যায়িত করে এই সরকার উৎখাতের লক্ষ্যে উগ্রবাদী কার্যক্রম পরিচালনার প্রয়াস চালিয়ে আসছে। তাদের এই কার্যক্রমকে যারা প্রতিহত করার চেষ্টা করে বা তাদের কাজে বিরোধ সৃষ্টি করে তাদের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত শাস্তির ব্যবস্থা করাই তাদের লক্ষ্য। তাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রতিবন্ধকতা কারীদের উপর তারা আকস্মিক আক্রমন করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করে থাকে। জঙ্গি তৎপরতা, প্রশিক্ষণ ও করনীয় সম্পর্কে তারা নিজেদের মধ্যে অনলাইনে যোগাযোগ করে। জঙ্গি সংগঠনের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের নির্দেশ প্রতিপালন সাংগঠনিক তৎপরতা বৃদ্ধি, নতুন সদস্য ও চাঁদা সংগ্রহসহ উগ্রবাদী কার্যক্রম সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রনয়ন ও বাস্তবায়নের নিমিত্তে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহনের জন্য তারা গোপন মিটিং করার জন্য গত  ১৬ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে ডিএমপির উত্তর পশ্চিম থানাধীন সেক্টর-১৩ চৌরাস্তা এলাকাস্থ সোনারগাঁও জনপথ রোড জমজম টাওয়ারের পশ্চিম পার্শ্বে ভোজন বিলাস হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট এর মধ্যে মিলিত হওয়ার চেষ্টা করছিল। র‌্যাব-৪ এর একটি অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই তথ্য জানতে পেরে উক্ত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আনসার আল ইসলাম এর ০৫ সদস্যকে গ্রেফতার করে নাশকতার পরিকল্পনা নস্যাৎ করা হয়। ঐ দিন উক্ত ঘটনাস্থলে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ তাভী খান ও মোঃ সোহাগ হাওলাদার উপস্থিত ছিলো। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা সুকৌশলে পালিয়ে যায়। ঐ অভিযানে গ্রেফতারকৃত আসামীদের নিকট হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অদ্য ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ গোপন সংবাদের মাধ্যমে আসামীদের অবস্থান সম্পর্কে তথ্য প্রাপ্ত হয়ে গাবতলী বাসষ্ট্যান্ড ও টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামীদ্বয়কে গ্রেফতার কর হয়। পলাতক আরো জঙ্গিদের গ্রেফতারের  চেষ্টা চলছে বলে  RAB -4 সুত্রে জানা গেছে।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম//আইন শৃঙ্খলা

Total Page Visits: 66749