• বৃহস্পতিবার (রাত ১২:০৪)
    • ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পাবনায় সিলেন ফুড প্রোডাক্টস কে অবৈধভাবে চানাচুর উৎপাদনের দায়ে জরিমানা করেছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ

পাবনা সংবাদদাতাঃ

পাবনা জেলার সদর উপজেলার শালগাড়িয়া নামক বাজারে অভিযান পরিচালিত হয়।

৫ ডিসেম্বর,২০১৯ইং তারিখে  এই অভিযানে মেসার্স সিলেন ফুড প্রোডাক্টস কে অবৈধ প্রক্রিয়ায় চানাচুর ও নিমকি উৎপাদন প্রক্রিয়াকরণ ও সরবরাহ করার অপরাধে জরিমানা করা হয়।। ভোক্তা অধিকার সুত্রে জানা গেছে, এরা চানাচুর উৎপাদনে  নিষিদ্ধ রাসায়নিক দ্রব্য অ্যামোনিয়াম সালফেট ও স্যাকারিন ব্যবহার করে আসছিল।  এই অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন,২০০৯ এর ৪২ও ৪৩ ধারা অনুযায়ী তাদেরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

অভিযানে সহযোগিতা করেন সদর উপজেলার নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক জনাব মোঃ এজাজুল হক ও পাবনা জেলা পুলিশের সদস্যবৃন্দ। জনস্বার্থে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে  ক্রাইম ডায়রিকে জানিয়েছেন নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক।

ক্রাইম ডায়রি/// জেলা//আদালত//ক্রাইম

Total Page Visits: 66417

অঙ্গদল আর নেতাঃ সবদলেরই উচিত সতর্ক হওয়া

ক্রাইম ডায়রি ডেস্কঃ

চারিদিকে নেতার ছড়াছড়ি।।। কর্মী বাহিনী খুঁজে পাওয়া মুশকিল।।।কি সরকারি কিংবা কি বিরোধী দল,চারিদিকে শুধু নেতা।। মাননীয় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদেরের একটি উক্তি মনে পড়ল।।তিনি যথার্থই বলেছিলেন, বাংলাদেশ এখন নেতা বানানোর কারখানায় পরিনত হয়েছে। আর দল,,,, জাতীয় প্রেসক্লাবে রাত্রিকালীন আড্ডায় কাকে যেন বলতে শুনলাম একদল ছাগলপালক সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা জাতীয় ছাগল চাষী লীগ নামের একটি দল খোলার চেষ্টা করছে, যা হবে কেন্দ্রীয় দলের অঙ্গসংগঠন। ইতোমধ্যে অসংখ্য ইস্যুভিত্তিক অঙ্গসংগঠনের জন্ম হয়েছে।।মূলদলে ঠাঁই না পেয়ে বিভিন্ন দলের মুনাফিকদের সমন্বয়ে খোলা হচ্ছে এসব অঙ্গ দল।।।তথ্য প্রযুক্তি লীগের বরাতে জানা গেছে এমন নাম না জানা কিংবা জানা দলের ভীরে মূল দলের অনেককে বিভিন্ন জায়গায় বেইজ্জতি হতে হয়।এসব অঙ্গদলে কেউ কর্মী হতে চায়না।।সবাই নেতা।।। এ যেন আন্ডারগ্রাউন্ড পত্রিকা বা অনলাইনে দুদিন কাজ করেই নিজে পত্রিকা, টেলিভিশন এর মালিক হওয়ার চেস্টার মত।।। এগুলো বন্ধ হওয়া জরুরী।।। ক্রাইম ডায়রির নিজস্ব গবেষণায় দেখা গেছে বিশেষ করে অপরাধী, অপরাধ সংশ্লিষ্ট কাজে জড়িতরাই নিজেদের নিরাপদ করতে কিংবা একশ্রেণির ধান্দাবাজ অবৈধভাবে অর্থ উপার্জনের মানসে এমন কাজে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। বঙ্গকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত গভীর বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন ও ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়ের অধিকারী একজন আইরন লেডি।।কেউ স্বীকার করুক চাই না করুক বিষয়টা বাস্তবতার নিরিখে প্রমানিত।।।তার নিকট আওয়ামীলীগের ত্যাগী ও প্রকৃত নেতাকর্মীদের দাবী হাইব্রিড এসব দলের বিষয়টি সম্পর্কে কড়া নজরদারি করা।।।আবার বিরোধী দলেরও উচিত এদিকে মনোযোগ দেয়া। । অঙ্গদল থাকতেই পারে কিন্তু সেটারও একটা লিমিট থাকা উচিত। কি সরকারি;কি বিরোধী দল সব দলের চেয়ারম্যানদের উচিত সঠিক ও গণমুখী রাজনৈতিক চর্চার স্বার্থে অঙ্গভিত্তিক দলের ব্যাপারে সময়োচিত সিদ্ধান্ত নেয়া।। না হলে পরে পস্তাতে হতে পারে।।।

লেখক–
আতিকুল্লাহ আরেফিন রাসেল
(লেখক,গবেষক, গণমাধ্যম ও মানবাধিকার কর্মী)
সম্পাদক ও প্রকাশক
ক্রাইম ডায়রি
(সাপ্তাহিক, অনলাইন দৈনিক, অনলাইন টেলিভিশন,অপরাধ গবেষণা)
কেন্দ্রীয় সভাপতি
জাতীয় সাংবাদিক পরিষদ
পরিচালক প্রশাসন
ভিকটিম সাপোর্ট এন্ড হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন।
০১৯১৫ ৫০৬৩৩২

Total Page Visits: 66417