• শনিবার ( সকাল ৬:৩৪ )
    • ১৯শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ’ এর আত্মপ্রকাশ

জুয়েল মাঝিঃ


‘ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ’ এর আত্মপ্রকাশ হয়েছেে। সুত্রে জানা গেছে, ৯ দফা দাবি আদায়ে আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর/২০১৯ইং লাগাতার ৭২ ঘন্টার সিএনজি অটোরিক্সা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে আজ ০২রা অক্টোবর ২০১৯ইং রোজ বুধবার সকাল ১১ টায়, জাতীয় প্রেসক্লাবের ২য় তলার জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ সংগঠন ‘ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ’ এর আত্মপ্রকাশ উপলক্ষে অবৈধ সিএনজি গাড়ি চলাচল ও পুলিশী হয়রানী বন্ধসহ ৯ দফা দাবি আদায়ে আগামীদিনের আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক আলহাজ¦ মো. বরকত উল্লাহ ভুলু। পরিচালনা করেন ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব সাখাওয়াত হোসেন দুলাল। বক্তব্য রাখেন এটিএম নাজমুল হাসান, মোতালেব হোসেন, মামুনুর রশীদ পিন্টু, আব্দুল করিম, মো. হারুন অর রশীদ, মোশারেফ হোসেন, সিদ্দিকুর রহমান, শাহে আলম, আব্দুল খালেক মজনু, অহিদুজ্জামান, শাহাবাজ খান সাজু, আব্দুল জাব্বার, মো. ইসলাম, মকবুল হোসেন, নুর মোর্শেদ, দেলোয়ার হোসেন, মো. মিঠু, জাহাঙ্গীর হোসেন, আব্দুল মালেক, মাহাবুব প্রমুখ।

দাবিসমূহ: ১। ক) ঢাকা মহানগরীতে চলাচলত ঢাকা জেলা, গাজীপুর, নারায়নগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলার অটোরিক্সা এবং অন্যান্য অবৈধ সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ করতে হবে। খ) প্রাইভেট সিএনজি অটোরিক্সার বাণিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ করতে হবে ২। ক) সুনির্দিষ্ট পার্কিং এর ব্যবস্থা না করে নো পার্কিং মামলা ও ডাম্পিং করা যাবে না। খ) এস.এস স্টিলের গ্রিল বাম্পার রং করার নামে মামলা এবং ভিডিও/গায়েবি মামলাসহ অন্যায়ভাবে কোন রকম মামলা ও রেকারিং করা যাবে না ৩। ক) রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের অনুমোদনবিহীন সকল মোটর সাইকেল ও প্রাইভেটকার বাণিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ করতে হবে। খ) রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের সকল চালকদের নির্দিষ্ট পোশাক, পেশাদারী লাইসেন্স বাধ্যতামূলক করতে হবে এবং প্রতি কিলোমিটার ভাড়া নির্ধারণ ও সিলিং সংখ্যা সর্বনি¤œ ও সর্বোচ্চ কত হবে তা নির্ধারণ করতে হবে এবং রাইড শেয়ারিংয়ের গাড়ী চিহ্নিত করার জন্য নির্দিষ্ট রংয়ের ষ্টিকার লাগানোর ব্যবস্থা করতে হবে। গ) রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের অনুমোদন প্রাপ্ত গাড়িসমূহের তালিকা ট্রাফিক পুলিশের ওয়েবসাইটে প্রদান করতে হবে ৪। ক) সেপ্টেম্বর ২০১৫ সালের পর চার (০৪) বার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কারণে চালকের ব্যয় বৃদ্ধি হওয়ায় ভাড়ার মিটারে প্রথম ২ কি.মি ৮০/- (আশি) টাকা এবং পরবর্তী প্রতি কি.মি. ৩০/- (ত্রিশ) টাকা এবং ওয়েটিং চার্জ প্রতি মিনিট ৪/- টাকা এবং মালিকের দৈনিক জমা আনুপাতিক হারে বৃদ্ধি করতে হবে। খ) চালক মিটারের ভাড়া বৃদ্ধি ও মালিকের দৈনিক জমা বৃদ্ধি না করা পর্যন্ত মিটার ও জমা সংক্রান্ত কোন মামলা করা যাবে না। ৫। সরকার কর্তৃক নির্ধারিত দৈনিক জমা বাস্তবায়ন করা এবং অন্যায়ভাবে চালিত সিপ্টিং প্রথা বাতিল করতে হবে। ৬। শুধুমাত্র সরকার নির্ধারিত ফি’র বিনিময়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান ও নবায়ন করতে হবে। পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়নের ক্ষেত্রে ব্যবহারিক পরীক্ষা/রি-টেস্টিং প্রথা বাতিল করে শ্রমিক হয়রানি বন্ধ ও উৎকোচ নেওয়া বন্ধ করতে হবে। ৭। গাড়ি চোর, মলম পার্টি, অজ্ঞান পার্টি, ছিনতাইকারী, চালক হত্যা বন্ধ করার কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। ৮। অটোরিক্সাকে শিল্প হিসাবে ঘোষণা করতে হবে। ৯। গ্রাহক সেবায় বিআরটিএ কর্তৃক গড়িমসি ও গ্রাহক হয়রানি বন্ধ করতে হবে।

কর্মসূচি সমূহ: ৬ অক্টোবর/২০১৯ইং সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন * ৭ অক্টোবর হতে ১২ অক্টোবর ২০১৯ইং থানায় থানায় কর্মী সভা ও গণসংযোগ * ১৩ অক্টোবর ২০১৯ সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে মালিক-শ্রমিক সমাবেশ * আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর/২০১৯ইং রোজ মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার ৩ দিন লাগাতার ৭২ ঘন্টার সিএনজি অটোরিক্সা ধর্মঘট।

ক্রাইম ডায়রি/ রাজধানী

Total Page Visits: 16655