আসছে ই-পাসপোর্টঃচালু হবে ২৮ নভেম্বর

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ

বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ এর স্বপ্ন বাস্তবায়নে আরও একধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। সবকিছুই যখন ডিজিটালাইজড       তখন পাসপোর্ট অধিদপ্তর কেন পিছিয়ে থাকবে। তাই, ২৮ নভেম্বর থেকে ১০ বছর মেয়াদি ই-পাসপোর্ট চালু হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি। এ বিষয়ে ইউরোপ সফরের সময় জার্মানির প্রতিষ্ঠান ভেরিডোস জেএমবিএইচের সঙ্গে  আলোচনা ও করে এসেছেন বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

MVI_2418

মন্ত্রী বলেন, ই-পাসপোর্ট জুলাইয়ের ১ তারিখ থেকে চালু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা দেরি হচ্ছে ইউরোপ সফরকালে আমি জার্মানিতে যাই। সেখানে ভেরিডোস জেএমবিএইচের সঙ্গে আলোচনা হয়।তিনি বলেন, সেখানে আমাদের প্রবাসীরাও দাবি করেছেন, যাতে পাসপোর্টের মেয়াদ ১০ বছর করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, ই-পাসপোর্টের মেয়াদ থাকবে ১০ বছর। এতে প্রবাসীদের সুবিধা হবে। কারণ, তারা অভিযোগ করেছেন, পাসপোর্ট নবায়ন করতে নানা ধরনের ঝামেলা পোহাতে হয়।

ড. মোমেন বলেন, আমি মনে করি নতুন পাসপোর্ট দু-তিন সপ্তাহের মধ্যে পাওয়া উচিত। আর নবায়ন করার ক্ষেত্রে আরও কম সময় লাগা উচিত।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-পাসপোর্ট প্রদানের ঘোষণা দেন। এরপর প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিআইপি) তৈরি থেকে শুরু করে আনুষঙ্গিক সব কাজ দ্রুততম সময়ে শেষ করে পাসপোর্ট ও বহির্গমন অধিদফতর। বর্তমান এমআরপি ব্যবস্থা থেকে ই-পাসপোর্ট ব্যবস্থায় উত্তরণ ঘটলে বাংলাদেশিরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ঝামেলাবিহীনভাবে ভ্রমণ করতে পারবেন।

কারণ ই-পাসপোর্ট এমন একটি ব্যবস্থা যেখানে বিদ্যমান বইয়ের সঙ্গে একটি ডিজিটাল পাতা (ডাটা পেজ) জুড়ে দেয়া হবে। ওই ডিজিটাল পাতায় উন্নতমানের মেশিন রিডেবল চিপ বসানো থাকবে। এতে সংরক্ষিত থাকবে পাসপোর্টধারীর সব তথ্য।

ডাটা পেজে থাকবে পাসপোর্টধারীর তিন ধরনের ছবি, ১০ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের আইরিশও। ভ্রমণকালে অভিবাসন কর্তৃপক্ষ কম্পিউটারের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ে পাসপোর্টধারীর সব তথ্য-উপাত্ত জানতে পারবেন। সবচেয়ে বড় সুবিধা হল বিভিন্ন বিমানবন্দরে ভিসা চেকিংয়ের জন্য।

ই-পাসপোর্ট একবারে ১০ বছরের জন্য দেয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে প্রধান কার্যালয়সহ ঢাকার তিনটি আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে ই-পাসপোর্ট প্রদান করা হবে। এরপর সারা দেশে ও পরে বিদেশ থেকেও ই-পাসপোর্ট দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

ক্রাইম ডায়রি//জাতীয়

Total Page Visits: 52246

বিসিকের হেড অফিসে চলছে মধুমেলা

মোঃ হেলাল উদ্দিনঃ

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)  ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের উৎসাহ দিয়ে সামনে দিকে এগিয়ে নিয়ে যুগোপযোগী ব্যবসায়ী তৈরির ক্ষেত্রে দারুণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বিশেষ করে গ্রামীন জনগোষ্ঠীর        -এর আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে মৌচাষ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্যোগে মতিঝিলস্থ বিসিক ভবন চত্বরে ২৭ হতে ৩১ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত ৫ দিনব্যাপী মধুমেলা-২০১৯ আয়োজন করা হয়েছে।

২৭ অক্টোবর ২০১৯ তারিখ রোববার বেলা ৩.৩০টায় বিসিক ভবনের নীচ তলায় (১৩৭-১৩৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০) বিসিক পরিচালক (বিপণন ও নকশা) মোঃ মাহবুবুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে মধুমেলার উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিকের প্রধান নকশাবিদ (ভাঃ) মোঃ রাহাত উদ্দিন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন বিসিক দেশব্যাপী ক্ষুদ্র, কুটির ও মাঝারি শিল্প খাতের উন্নয়নে উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন ধরনের সেবা-সহায়তা প্রদান করে আসছে। পাশাপাশি আধুনিক পদ্ধতিতে মৌচাষের মাধ্যমে মধু উৎপাদন বৃদ্ধির কার্যক্রমও পরিচালনা করছে। ১৯৭৭ সাল থেকে বিসিক মৌচাষের কার্যক্রম গ্রহণ করে। দেশে বর্তমানে দুই প্রজাতির যথা, অ্যাপিস মেলিফেরা এবং অ্যাপিস সেরেনা বা দেশজ প্রজাতির মৌমাছি বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে মৌবাক্সে চাষ করা হয়। মধু উৎপাদন এবং পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও সফল পরাগায়নের মাধ্যমে ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে এ দু প্রজাতির মৌমাছি বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে মৌবাক্সে চাষ করা প্রয়োজন। ফসলের মাঠে মৌমাছিরা বিচরণ করে সেখানে বাড়তি পরাগায়নের কারণে ফসলের উৎপাদন ৩০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়।

অনুষ্ঠানের আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে মৌমাছি পালন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক খন্দকার আমিনুজ্জামান বলেন, আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে দেশব্যাপী মৌচাষে মৌচাষীদের উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে মধু উৎপাদন বৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে মানুষের আয়বৃদ্ধির মাধ্যমে দারিদ্র্য দূরীকরণ সম্ভব। এই কার্যক্রম পালনের মাধ্যমে ইতোমধ্যে বিসিক দেশব্যাপী প্রায় ১৮ হাজার নারী ও পুরুষকে আধুনিক পদ্ধতিতে মৌ-চাষ বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করেছে। তাছাড়া আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে মৌচাষ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৬ হাজার লোককে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীদের অনেকেই বর্তমানে মৌ চাষের মাধ্যমে মধু উৎপাদনে যথেষ্ট সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। মৌ-চাষীদের উৎপাদিত মধুর ব্যাপক পরিচিতি ও বাজার সৃষ্টি এবং মধু ব্যবহার সম্পর্কে মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে এই মধুমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এছাড়াও উক্ত অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিসিক পরিচালক (প্রযুক্তি) ড. মোহা: আব্দুস ছালাম ও বিসিক পরিচালক (প্রকল্প) মোহাম্মদ আতাউর রহমান ছিদ্দিকী, মৌচাষ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবাদুল্লাহ আবজাল।

দেশের বিভিন্ন এলাকার মৌ-চাষীদের উৎপাদিত মধু বিক্রি ও প্রদর্শনের লক্ষ্যে মেলায় ২৮ টি স্টল স্থান পেয়েছে। মেলা চলবে ২৭ হতে ৩১ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ৯.০০ টা থেকে বিকাল ৫.০০ টা পর্যন্ত মেলা সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ক্রাইম ডায়রি//শিল্প বানিজ্য

Total Page Visits: 52246

দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন সাকিবঃ সততার জন্য এক বছরের সাজা কমালো আইসিসি

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ

সাকিব একটি নাম, একটি স্বপ্ন,একটি আশার প্রতীক।।।বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন।  আর সেই ভালবাসার খেলোয়ারকেই নিষিদ্ধ করল আইসিসি। হ্যা, জাতীয় দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে আইসিসি।

তিন তিনবার ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও তা না জানানোয় তার বিরুদ্ধে এ শাস্তির ব্যবস্থা নিল বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণসংস্থা আইসিসি।।।

২০১৮ সালে ঢাকায় ত্রিদেশীয় সিরিজ ওআইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের জন্য জুয়াড়ির কাছ থেকেপ্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু বিষয়গুলো অবহেলা করে আইসিসিকে না জানানোয় তাকে এ শাস্তি দেয়া হয়।

তবেফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার সততায় সন্তুষ্ট হয়ে বাংলাদেশ দলের এ অধিনায়কের শাস্তি এক বছর স্থগিতকরেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। এইসময়ে সাকিব যদি কোনো অপরাধে না জড়ায় তাহলেই বাকি এক বছরের শাস্তি থেকে তিনি রেহাই পাবেন। এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবরে মাঠে ফিরতে পারবেন সাকিব। তার আগে জাতীয় এবং ঘরোয়া সব ধরনের পেশাদার ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হবে বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডারকে।

এ ব্যাপারে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সাকিবের সঙ্গে যখন যোগাযোগ করেছিল ও গুরুত্ব দেয়নি, আইসিসিকে জানায়নি। নিয়ম হল সঙ্গে সঙ্গে জানানো। এখন আইসিসি যদি ব্যবস্থা নেয়, খুব বেশি কিছু তো আমাদের করার থাকে না।

প্রধানমন্ত্রী আরওবলেন, একটা ভুল সে করেছে এটা ঠিক, এটা সে বুঝতেও পেরেছে। তবে, বিসিবি বলেছে তার পাশে থাকবে। আর শুধু বিসিবি নয়, পুরো বাংলাদেশ আছে সাকিবের পাশে।।সাধারন গণমানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেয়া বিশ্বসেরা খেলোয়ার সাকিবের জন্য পুরোপুরি ভালবাসা ও সমর্থন জানাচ্ছে দেশের সাধারন মানুষ।

ক্রাইম ডায়রি///জাতীয়/খেলাধুলা

Total Page Visits: 52246

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল-৫ এ দুদকের অভিযান

আতিকুল্লাহ আরেফিন রাসেলঃ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল-৫ এর কর কর্মকর্তা ও লাইসেন্স পরিদর্শক এর বিরুদ্ধে ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন বাবদ অবৈধভাবে অতিরিক্ত অর্থ লেনদেন ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগে দুদক, প্রধান কার্যালয়, ঢাকার সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান সরকার ও উপসহাকরী পরিচালক মুহাম্মদ শিহাব সালাম এর সমন্বয়ে আজ একটি এনফোর্সমেন্ট অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানকালে, দুদক টিম আনোয়ার হোসেন নামে একজন দালালকে লাইসেন্স এর আবেদন ফরম, লাইসেন্স নবায়ন ফির বহি, জন্মনিবন্ধন বহি, অন্যান্য অফিসিয়াল বহি এবং সেবা প্রত্যাশিদের নিকট থেকে অবৈধভাবে আদায়কৃত নগদ ৬৩,০৮৬/- (তেষট্টি হাজার ছিয়াশি টাকা) সহ তাকে আটক করে। দুদকের অভিযান চলাকালেই উপস্থিত সিটি কর্পোরেশনের মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাকে ৩ দিনের সাজা প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এছাড়া, ডিএনসিসির অঞ্চল-৫ এর ০২ জন লাইসেন্স ইন্সপেক্টর এর বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা, দালাকচক্রের মাধ্যমে অবৈধভাবে ঘুষ লেনদেন এবং গ্রাহক হয়রানীর অভিযোগে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ক্রাইম  ডায়রি//ক্রাইম//আইন শৃঙ্খলা

Total Page Visits: 52246

দক্ষিণ শুকছড়ী শাহ এনায়েত (রহঃ) ওরশ অনুষ্ঠিত

হোসেন মিন্টু, চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যুরো চীফঃ

দক্ষিণ শুকছড়ী চিশতীয়া দরবার শরীফে ” শাহ সূফী হযরত সৈয়দ মুহাম্মদ বাছেত আলী শাহ ওরফে শাহ এনায়ত উল্লাহ ছূফী (রহঃ)” এর ৩দিন ব্যাপী পবিত্র ওরশ শরীফ পীরে ত্বরিকত হযরতুলহাজ্ব আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ নাছেরুল হক চিশতী (মাঃজিঃআঃ) এর সভাপতিত্বে মহাসমারোহে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চট্টগ্রাম ২৪ অক্টোবর খতমে গাউছিয়া, খতমে খাজেগান ও মাজারে গিলাফ চড়ানো হয়।

চট্টগ্রাম ২৫ অক্টোবর মূল দিবসের শুরুতে বাদে ফজর খতমে কোরআন, ফ্রি খতনা ও চিকিৎসা সেবা প্রদান, জুমার নামাজের পর দেশবরেণ্য আলেমগণের উপস্থিতিতে খতমে বোখারী শরীফ এবং মিলাদুন্নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) অনুষ্ঠিত হয়।মাহফিলের ছদারত করেনঃ পীরে ত্বরিকত হযরতুলহাজ্ব আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ নাছেরুল হক চিশতী (মাঃজিঃআঃ)। সাজ্জাদানশীনঃ দক্ষিণ শুকছড়ী চিশতীয়া দরবার শরীফ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দিল্লীর হযরত নিজামুদ্দিন আউলিয়া (রহ) দরবারের গদিনশীন হযরত সৈয়দ গোলাম নিজাম নিজামী (দা.বা.) প্রধান বক্তা ছিলেনঃ ড. মুহাম্মদ নূর হোসাইন সহকারী অধ্যাপক, আরবি বিভাগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। বিশেষ বক্তাঃ মাহবুবুল হক আলকাদেরী।

মাহফিলে বক্তারা বোখারী শরীফের ফযিলত বর্ণনা এবং হযরত সৈয়দ এনায়েত উল্লাহ ছূফী (রহঃ) জীবনী ও কারামতের উপর আলোচনা করেন।
এরপরে নির্ধারিত মাহফিল – গাগর জুলুশ ও মাহফিলে ছেমা অনুষ্ঠিত হয় এবং বাদে ফজর মুনাজাত ও তবাররুক বিতরণ করা হয়।

চট্টগ্রাম ২৬ অক্টোবর মাহফিলে কূল ও আখেরী মুনাজাত এর মাধ্যমে ৩দিন ব্যাপী ওরছ মাহফিলের সমাপ্তি হয়।

ক্রাইম ডায়রি//জেলা

Total Page Visits: 52246

বিসিবি’র পরিচালক লোকমান অভিযুক্ত হবার পরেও কিভাবে স্বপদে বহাল—সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

ক্রাইম ডায়রি ডেস্কঃঃ

বঙ্গকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরাসরি তত্বাবধানে শুদ্ধি অভিযানে ছাড় পাচ্ছেন না দলমত নির্বিশেষে সকলেই। ঠিক সেই সময়েই প্রমাণিত অভিযোগ নিয়ে স্বপদে বহাল আছেন দেশের অন্যতম প্রতিষ্ঠান বিসিবি’র  পরিচালক লোকমান।  অভিযোগ পেয়েও তার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি,তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন,লোকমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। ‘সে এখনো বিসিবির পরিচালক থাকে কী করে? অভিযোগ আসার পরেই তো তার ওই পদে থাকা উচিত না। আমি বিসিবি সভাপতির সাথে এ বিষয়ে কথা বলবো এবং তাকে জিজ্ঞাসা করবো লোকমানের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আজ সোমবার (২৮ অক্টোবর) সচিবালয়ে সেতু মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আটক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের মনিপুরীপাড়ার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয় গত ২৫ অক্টোবর। র‍্যাবের অভিযোগ, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে বসানো ক্যাসিনো থেকে প্রতিদিন ৭০ হাজার টাকা করে নিতেন ক্লাবটির ডিরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়া। তার বিরুদ্ধে বিদেশে অর্থপাচারসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম//খেলাধুলা//আইন শৃঙ্খলা

Total Page Visits: 52246

কক্সবাজারে ঘুষের টাকাসহ ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো গ্রেফতার

কক্সবাজার সংবাদদাতাঃ

সারাদেশে ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে      ভূমিহীন ও প্রতিবন্ধী এক যুবকের নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে মহেশখালী উপজেলা (কক্সবাজার) ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো আব্দুর রহমানকে হাতে-নাতে গ্রেফতার করেছে দুদক।

২৮অক্টোবর বিকাল ৪ টায় দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-২ এর উপপরিচালক মাহবুবুল আলম-এর নেতৃত্বে ছয় সদস্যের একটি টিম কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিস থেকে নিজ দপ্তরে বসে ঘুষ গ্রহণকালে ঘুষের টাকাসহ ঐ ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো আব্দুর রহমানকে গ্রেফতার করে।

স্থানীয় জনৈক ভূমিহীন ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তি অভিযোগ করেন, মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর মৌজায় নিজের ভূমিহীন বাবা ও মায়ের নামে ভূমিহীন হিসেবে পাওয়া বন্দোবস্তি প্রাপ্ত জমির নামজারি প্রতিবেদনের জন্য আব্দুর রহমান তার কাছে ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। প্রতিবন্ধী এই যুবকের কোনো অনুরোধেই মন গলেনি আব্দুর রহমানের। ঘুষের টাকা না দিলে, প্রতিবেদন দিবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন।
বিষয়টি ঐ প্রতিবন্ধী যুবক লিখিতভাবে দুদক-কে অবহিত করলে-কমিশন অভিযোগসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে ফাঁদ মামলা পরিচালনা করে ঘুষ গ্রহণকালে হাতে-নাতে গ্রেফতারের অনুমতি দেয়।

আজ ঘুষ গ্রহণের নির্ধারিত সময়ের অনেক আগ থেকেই দুদক টিমের সদস্যরা মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিসের চারিদিকে ওত পেতে থাকেন । মহেশখালী উপজেলা (কক্সবাজার) ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো আব্দুর রহমান যখন আজ বেলঅ ৪ টায় নিজ দপ্তরে বসে ঘুষের ২০ হাজার টাকা গ্রহণ করছিলেন, ঠিক তখনই দুদক টিমের সদস্যরা তাকে ঘুষের টাকাসহ হাতে-নাতে গ্রেফতার করে। এসময় তার ব্যবহার্য ব্যাগ, ড্রয়ার তল্লাশি করে আরো নগদ প্রায় ১ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা উদ্ধার করে দুদক টিম। আসামি এসব টাকারও কোনো বৈধ উৎস জানাতে পারেননি। এসব টাকাও আজকেরই ঘুষের টাকা বলেই সাক্ষ্য পাওয়া যাচ্ছে। এ বিষয়ে দুদক সজেকা চট্টগ্রাম-২ এর সহকারী পরিচালক মোঃ হুমায়ুন কবীর বাদী হয়ে দুদক সজেকা চট্টগ্রাম-২-এ একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছেন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-২ এর উপপরিচালক মুহম্মাদ মাহবুবুল আলম।

ক্রাইম ডায়রি/ক্রাইম   /// দুদক বিট

Total Page Visits: 52246

শুল্ক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি’র এমপি হারুনের জামিন মঞ্জুর করেছে হাইকোর্ট

আদালত প্রতিবেদকঃ

দুদকের দায়ের করা শুল্ক ফাঁকির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেছিলেন  বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব  ও  চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের এমপি হারুন একাদশ জাতীয় সংসদে বিএনপির সংসদীয় দলের নেতা হারুন অর রশীদ এমপি। শুল্কমুক্ত সুবিধায় গাড়ি আমদানি করার পর তা বিক্রি করে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তাকে ৫ বছরের সাজা দিয়েছিল নিম্ন আদালত। এই রায়ের বিপক্ষে উচ্চ আদালতে আপিল করেন এমপি হারুন। ২৮ অক্টোবর,সোমবার দুপুরে আপিলের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. শওকত হোসেনের বেঞ্চ তাকে ৬ মাসের জামিন দেন।

আগে সোমবার সকালে দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানান, এমপি হারুন তার দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন। পাশাপাশি জামিনও চেয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, বিগত ২১ অক্টোবর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম এমপি হারুনকে ৫ বছরের দণ্ড দেন। রায়ে এমপি হারুনকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ওইদিনই তাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়।

এই মামলায় পলাতক আসামি চ্যানেল নাইনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এনায়েতুর রহমান বাপ্পিকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। সেই সাথে  অপর পলাতক আসামি গাড়ি ব্যবসায়ী স্কাই অটোসের মালিক ইশতিয়াক সাদেককে তিন বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৪০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত।

শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি করে শর্তভঙ্গ করে তা বিক্রি করায় সরকারের ৮৭ লাখ ৭১ হাজার ৬১২ টাকার শুল্ক বাবদ আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় ২০০৭ সালের ১৭ মার্চ এসআই মো. ইউনুচ আলী বাদী হয়ে রাজধানীর পল্লবী থানায় মামলা করেন।আদালত সূত্রে  জানা গেছে , ২০০৫ সালের ১৯ এপ্রিল হারুন অর রশীদ এমপি কোটায় শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানি করেন। এর এক সপ্তাহ পরই শুল্কমুক্ত গাড়িটি তিনি বিক্রি করে দেন। গাড়িটি তিনি স্কাই অটোসের মালিক ইশতিয়াক সাদেকের মাধ্যমে ক্রেতা মো. এনায়েতুর রহমানের কাছে বিক্রি করেন। গাড়িটির ইনভয়েস মূল্য ১১ লাখ ৬৪ হাজার ১১০ টাকা। দুদকের সহকারী পরিচালক মো. মোনায়েম হোসেন আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে  চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করলে আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ (অভিযোগ) গঠনের মাধ্যমে মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু করেন।

ক্রাইম ডায়রি// আদালত///রাজনীতি

 

Total Page Visits: 52246

ঘুষসহ হাতে-নাতে আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা গ্রেফতার

উত্তরাঞ্চলীয় অফিসঃ

দুর্নীতি দমন কমিশনের বগুড়া সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের একটি বিশেষ টিম ২৭ অক্টোবর রবিবার  বগুড়া সদর উপজেলার আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা আনিছুর রহমানকে নিজ দপ্তর হতে ২০ হাজার টাকা ঘুষসহ হাতে-নাতে গ্রেফতার করেছে। একই সময় অফিসে তার ব্যবহৃত ড্রয়ার হতে নগদ ২৫,২৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

এটাকার উৎস সম্পর্কে তিনি সন্তোষজনক কোনো জবাব দিতে পারেননি। দুদক সজেকা বগুড়ার সহকারী পরিচালক মোঃ আামিনুল ইসলাম এ বিষয়ে দুদক সজেকা বগুড়ায় একটি মামলা দায়ের করেছন।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম//আইন শৃঙ্খলা/দুদক

Total Page Visits: 52246

পুলিশের সঙ্গে কাজ করি, মাদক-জঙ্গি-সন্ত্রাসমুক্ত দেশ গড়ি

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির.সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার,বাগেরহাট:
সারাদেশের মতো বাগেরহাটেও পালিত হয়েছে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০১৯।
পুলিশের সঙ্গে কাজ করি, মাদক-জঙ্গি সন্ত্রাসমুক্ত দেশ গড়ি’ প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে শনিবার পালিত হয়েছে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০১৯।
থানা পুলিশ ও কমিউনিটিং পুলিশ কমিটির আয়োজনে দিবসটি উপলক্ষ্যে সকালে অনুষ্ঠিত র‌্যালি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে থানা চত্বরের আলোচনা সভায় মিলিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.রিয়াজুল ইসলাম। থানা অফিসার ইন চার্জ কেএম আজিজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বক্তব্য রাখেন,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার লিয়াকত আলী খান, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি মো. শাহাবুদ্দিন তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক খম লুৎফর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান এইচ এম মাহামুদ আলী, হোগলাবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মো. আকরামুজ্জামান, মোরেলগঞ্জ প্রেস ক্লাব সভাপতি মেহেদী হাসান লিপন, ওসি তদন্ত ঠাকুর দাস মন্ডল, পুটিখালী ইউনিয়ন পুলিশিং কমিটির সভাপতি আব্দুল কাদের প্রমুখ।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বারইখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান লাল, হোগলাপাশা ইউনিয়ন রেজাউল ইসলাম নানা, জিউধরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম বাদশা, নিশানবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বাচ্চু, আওয়ামীলীগ নেতা মুসফেকুর রহমান নাহার প্রমুখ। সভায় জনপ্রতিনিধি,সাংবাদিক,পুলিশ সদস্য ও কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ক্রাইম ডায়রি// জেলা
Total Page Visits: 52246