• বুধবার ( সকাল ৬:৪৮ )
    • ২৩শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং

এনডিসি টিমের পুলিশ হেডকোয়ার্টাস পরিদর্শনঃ পারস্পরিক দৃঢ় বন্ধুত্বের আশাবাদ ব্যক্ত

শরীফা আক্তার স্বর্নাঃ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বাংলাদেশ পুলিশ গৌরবময় দুটি বাহিনী। দেশমাতৃকার এক অনন্য সংগঠন এই দুই বাহিনী ।  সম্প্রতি,  ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে প্রশিক্ষণরত ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স(এনডিসি)-২০১৯ এর প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাগণ প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে ২২ মে ২০১৯ খ্রি. বুধবার দুপুরে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স পরিদর্শন করেন। এ সময় এ দলের নেতৃত্ব দেন মেজর জেনারেল মোঃ মুশফেকুর রহমান ।

এনডিসি টিমের এ পরিদর্শন উপলক্ষে অতিরিক্ত আইজিপি (এএন্ডও) ড. মোঃ মইনুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলন কক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অতিরিক্ত ডিআইজি (ট্রেনিং-১) মোঃ মিজানুর রহমান বাংলাদেশ পুলিশের মিশন, ভিশন, ইতিহাস, ঐতিহ্য, মহান মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদান, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় গৃহীত পদক্ষেপ, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অনবদ্য ভূমিকা, কৌশলগত পরিকল্পনা, সীমাবদ্ধতা এবং ভবিষ্যত পরিকল্পনা ইত্যাদি প্রতিনিধিদলের সামনে তুলে ধরেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের বীরোচিত ভূমিকার ওপর একটি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়।

পরে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে প্রতিনিধিদলের সদস্যরা অপরাধ দমন, কমিউনিটি পুলিশিং, পুলিশি সেবা প্রদান, মানব পাচার ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে চান। পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের ডিআইজি (অপারেশনস্) ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান, ডিআইজি (এইচআর) এস এম রুহুল আমিন, ডিআইজি (লজিস্টিকস্) ব্যারিস্টার মোঃ হারুন আর রশিদ, অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ মনিরুজ্জামান, অতিরিক্ত ডিআইজি এস এম আক্তারুজ্জামান প্রমুখ কর্মকর্তাগণ প্রতিনিধিদলের সদস্যদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

সভাপতির বক্তব্যে ড. মোঃ মইনুর রহমান চৌধুরী বলেন, এনডিসি টিমের এ সফর পুলিশ ও সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বিরাজমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় করবে। এর ফলে সশস্ত্র বাহিনী ও পুলিশ সদস্যদের মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও সম্প্রীতি বাড়বে।

প্রতিনিধিদলের প্রধান বাংলাদেশ পুলিশের প্রশংসা করে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে দৃশ্যমান উন্নয়ন ঘটেছে। তিনি এনডিসি প্রশিক্ষণার্থীদের উষ্ণ অভ্যর্থনা ও আন্তরিক আতিথেয়তা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল এবং পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান।

প্রতিনিধিদলে সশস্ত্র বাহিনী, প্রশাসন, বাংলাদেশ পুলিশ এবং ৩১ জন বিদেশী প্রশিক্ষণার্থীসহ মোট ৮৫ জন কর্মকর্তা ছিলেন।

এর আগে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, বিপিএম (বার) এর সাথে প্রতিনিধিদলের প্রধান মেজর জেনারেল মোঃ মুশফেকুর রহমান সৌজন্য সাক্ষাত করেন। এ সময় তাঁরা পরস্পর শুভেচ্ছা স্মারক বিনিময় করেন।

ক্রাইম ডায়রি//সুত্রঃfb/Bangladesh Police/জাতীয়

Total Page Visits: 17098

টিকিট বিক্রিতে নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগঃ কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে দুদকের অভিযান

আতিকুল্লাহ আরেফিন রাসেলঃঃ

সারাদেশে ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে আজও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। কমলাপুর রেলস্টেশনসহ আজ চারটি স্থানে  অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।। টিকিট বিক্রিতে নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অগ্রিম টিকিট বিক্রির আজই প্রথম দিন। কিন্তু ভুক্তভোগী গ্রাহকরা দুদকে অভিযোগ করেন, সার্ভারে ত্রুটির কারণে অনলাইনে তাঁরা টিকিট কাটতে পারছেন না। এ প্রেক্ষিতে পুলিশসহ আট সদস্যের এনফোর্সমেন্ট টিম আজ (২২/০৫/২০১৯ খ্রি.) অভিযান পরিচালনা করে। টিম স্টেশনে আগত টিকেটপ্রত্যাশীদের সাথে কথা বলে। অনেক যাত্রী অভিযোগ করেন, গতকাল রাত থেকে দাঁড়িয়ে লাইনের একেবারে সামনে থাকা সত্ত্বেও শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত টিকেট পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে এক্ষেত্রে সার্ভারে কারচুপি হয়ে থাকতে পারে জানিয়ে তাঁরা দুদককে খতিয়ে দেখতে অনুরোধ করেন।

দুদক টিম অনলাইনে টিকিট বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান সিএনএস এর মহাপরিচালক শামীমুল আলমের সাথে কথা বলে। তিনি বলেন, প্রচুর গ্রাহকের চাপ থাকার কারণে সার্ভারে সমস্যা হচ্ছে। দুদক টিম সার্ভারে কোনরূপ কারচুপি/দুর্নীতির মাধ্যমে যেন টিকিট কেটে রাখা না হয় সে বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন। এছাড়াও টিম স্টেশন ম্যানেজারের সাথে কথা বলে এবং টিকেট কালোবাজারির বিষয়ে সতর্ক থাকতে তাকে অনুরোধ করে। উপস্থিত জনসাধারণ দুদকের এ অভিযানকে স্বাগত জানান।

ক্রাইম ডায়রি//ক্রাইম//দুদক বিট

Total Page Visits: 17098

জেলা সমাজসেবা কর্মকতা ও মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগঃহাইকোর্টের রুল জারি

হোসেন মিন্টুঃ
চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বিরুদ্ধে আনা অর্থিক অনিয়ম এবং সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) আইন লংঘনের বিষয়ে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বাস্তবায়ন না করায় জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাসহ সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে রুল জারী করেছে হাইকোর্ট। চার সাপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলেছে কোর্ট। বিচারপতি মামনুর রহমান এবং বিচারপতি আশিষ রঞ্জন দাশের সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ ১৯ মে ২০১৯, রোববার এই আদেশ দেন। জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ও মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে সিনিয়র সাংবাদিক সদস্য হাসান ফেরদৌস’র দায়ের করা আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এই নির্দেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট নুরুল করিম বিপ্লব।
চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের প্রায় দেড় কোটি টাকার আর্থিক অনিয়ম এবং সংগঠন পরিচালনার ক্ষেত্রে সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) লংঘনের অভিযোগ এনে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সদস্য ও সিনিয়র সাংবাদিক এম. নাসিরুল হক, হাসান ফেরদৌস এবং হোছাইন তৌফিক ইফতেখার গত বছরের ০৫ এপ্রিল জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের কাছে আবেদন করেন। জেলা সমাজসেবা কার্যালয় বিষয়টি নিয়ে গড়ি মসি করায় গত বছরের ৬ আগষ্ট বিচারপতি তারিকুল হাকিম এবং বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরোয়াদী সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চে রিট পিটিশন দাখিল করেন। এতে বিবাদী করা হয় সমাজসেবা মন্ত্রণালয়ের সচিব, সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক, জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাসহ চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষকে। ওই মামলায় আদালত চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব কর্তৃপক্ষের অনিয়মের বিরুদ্ধে তিন সিনিয়র সাংবাদিকের দায়ের করা অভিযোগ তিন মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দেন। সমাজকল্যাণ সংস্থাসমূহ (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) আইন লংঘন করে কার্যক্রম পরিচালনা কেন বে-আইনি ঘোষনা করা হবে না এই মর্মে রুল জারী করেন। চার সাপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে হাইকোর্ট নির্দেশ দেন।
হাইকোর্টের আদেশ যথাযথ বাস্তবায়ন না করায় রিট আবেদনকারী সিনিয়র সাংবাদিক হাসান ফেরদৌস আজ রোববার বিচারপতি মামনুর রহমান এবং বিচারপতি আশিষ রঞ্জন দাশের সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ আদালত অবমাননার আবেদন জানালে আদালত এই রুল জারি করেন এবং চার সাপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে নির্দেশ দেন।

ক্রাইম ডায়রি/আদালত

Total Page Visits: 17098