• শনিবার ( রাত ১১:০৫ )
    • ২৪শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

তিতাসের সাবেক এমডি ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

আতিকুল্লাহ আরেফিন রাসেলঃঃ

তিতাসের একটা নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো আছে। আবার তিতাসে চাকুরী করা অবস্থায় অন্য কোন প্রতিষ্ঠানেে চাকুরী বা ব্যবসায় জড়িত হওয়া যাবেনা।। তবে এত টাকা কামালেন কিভাবে??? ব্যবসা????উহু!!!   জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী নওশাদ ইসলাম ও তার স্ত্রী রাজিয়া নওশাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রবিবার (৫ মে) রাজধানীর রমনা থানায় এ মামলা করা হয়। মামলার বাদী দুদক উপ-পরিচালক এসএমএম আখতার হামিদ ভূঞা। দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪-এর ২৬(২) ও ২৭(১) ধারায় মামলাটি করা হয়।

২০১৪-১৫ অর্থবছরে তিতাসের কর-পরবর্তী মুনাফা হয় আগের পাঁচ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম। ওই সময় তিতাসের এমডি ছিলেন প্রকৌশলী নওশাদ। ২০১৬ সালের মার্চ মাসে দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে তিতাস থেকে অপসারিত হন তিনি। সুত্রে জানা গেছে,   দুদকের মামলায় নওশাদ ইসলামের বিরুদ্ধে ৭৯ লাখ ৪১ হাজার ৮৩ টাকা এবং তার স্ত্রী রাজিয়ার বিরুদ্ধে ১ কোটি ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬০৫ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়েছে। দুদকের নোটিশ পাওয়ার পর গত বছরের ১০ জানুয়ারি সম্পদবিবরণী দাখিল করেছিলেন সস্ত্রীক নওশাদ।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, প্রকৌশলী নওশাদের নেতৃত্বে অবৈধ গ্যাস সংযোগের রমরমা বাণিজ্য চলেছে তিতাসে। কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার করেছে অনেকে। এসবের পেছনে রয়েছে কোটি কোটি টাকার দুর্নীতি। ধারাবাহিকভাবে দুদকের অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে দুদক সুত্রে জানাগেছে।

ক্রাইম ডায়রি///ক্রাইম//দুদক বিট

6950total visits,276visits today

ঝালকাঠিতে সন্তানকে আত্মীয়ের বাসায় রেখে শিক্ষিকার আত্মহত্যা

ইমাম বিমানঃ
ঝালকাঠিতে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে এক কলেজ শিক্ষিকার আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকেলে শহরের রোনালসে রোডস্থ  নিজ বাসায় গলায় ওড়না পেচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলে সদর উপজেলাধীন আকলিমা মোয়াজ্জেম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক মোসা: তানিয়ার (৩২)  আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। তানিয়ার স্বামী ঝালকাঠি জজ কোর্টের এ্যাডভোকেট মো: জাকারিয়া রহমান জিহাদ।  ঘটনার পূর্বে তানিয়া তার ২ কন্যা সন্তানকে একই ভবনের ৩ তলায় আত্মীয়ের বাসায় রেখে সকলের অগচরে আত্মহত্যা করেন। তবে আত্মহত্যার সঠিক কারন জানা যায়নি।
এ বিষয় ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শোণিত কুমার গায়েন মুঠো ফোনে জানান, আমরা ঘটনা স্থানে যাওয়ার পর দেখি তার ব্যবহৃত ওড়নার সাথে প্যাচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। লাশ পোষ্টমর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছি। এ বিষয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেননি।
ক্রাইম ডায়রি///ক্রাইম

6950total visits,276visits today